যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদীদের বিক্ষোভ
কনফেডারেট জেনারেল লি এর মূর্তি সরানোর উদ্যোগ
বিবিসি১৩ আগষ্ট, ২০১৭ ইং
যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদীদের বিক্ষোভ
যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে মিছিল করেছে কট্টর শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদীরা। তারা একজন কনফেডারেট জেনারেলের মূর্তি সরানোর উদ্যোগের প্রতিবাদ জানায়। মশাল হাতে বিক্ষোভের সময় তারা শ্লোগান দেয় ‘ইহুদীরা আমাদের স্থান নিতে পারবে না এবং সাদাদের জীবনের মূল্য আছে।’ তারা ভার্জিনিয়া ইউনিভার্সিটির ভেতর দিয়ে মিছিল নিয়ে যান।

 শহরের মেয়র তাদের এই কর্মসূচিকে বর্ণবাদী আচরণ বলেছেন। এ সময় প্রতিপক্ষের সঙ্গে শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদীদের সংঘর্ষ হয়।

চার্লসলটেসভিল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে জেনারেল রবার্ট ই লি এর মূর্তি অপসারণের পরিকল্পনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন মিছিলে অংশ নেওয়া অনেকে। যুক্তরাষ্ট্রে গৃহযুদ্ধের সময় দাসপ্রথার পক্ষের কনফেডারেট বাহিনীর  প্রধান ছিলেন  রবার্ট ই লি।

সমাবেশের সংগঠক জেশন কেসলার বলেন, সাদা মানুষের জন্য এটি একটি চরম মুহূর্ত যখন তারা আর চাপ নিতে পারছে না। বিক্ষোভকারীরা মশাল হাতে মিছিল করে। তারা শ্লোগান দেয় রক্ত এবং মাটি, এক দেশে এক জাতি।

এদিকে একটি ছোট গ্রুপ শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদীদের বিরুদ্ধে ক্যাম্পাসে মিছিল করেছে। তারা শ্লোগান দেয় ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বর্ণবাদী শ্বেতাঙ্গদের বিরুদ্ধে দাঁড়াও। দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের উপক্রম হলে পুলিশ এসে হস্তক্ষেপ করে।

ভার্জিনিয়ার চার্লসলটেসভিলের মেয়র শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদীদের সমাবেশকে অসহিষ্ণু, বর্ণবাদী এবং ঘৃণার উদ্রেককারী বলেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের চার্লসলটেসভিলকে একটি উদার শহর হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এখানকার ৮৬ ভাগ মানুষ হিলারি ক্লিনটকে ভোট দিয়েছিলেন।

শহর কর্তৃপক্ষ জেনারেল লি এর মূর্তি অপসারণের সিদ্ধান্ত নিলে শহরটি শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদীদের মনোযোগের কেন্দ্রে পরিণত হয়। অনেক পর্যবেক্ষকের মতে ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদীরা শক্তিশালী হয়েছে। গত মাসে উগ্র শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদীদের সংগঠন ক্লু ক্লাক্স ক্লান ভার্জিনিয়ায় সমাবেশ করেছে।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৩ আগষ্ট, ২০১৭ ইং
ফজর৪:১৩
যোহর১২:০৪
আসর৪:৩৯
মাগরিব৬:৩৭
এশা৭:৫৪
সূর্যোদয় - ৫:৩৩সূর্যাস্ত - ০৬:৩২
পড়ুন