বিজ্ঞান ও টেক | The Daily Ittefaq

দেশে ইনোভেটিভ এন্টারপ্রেওনারশীপ ইকোসিস্টেম তৈরিতে কাজ করছি : শামীম আহসান

দেশে ইনোভেটিভ এন্টারপ্রেওনারশীপ ইকোসিস্টেম তৈরিতে কাজ করছি : শামীম আহসান
অনলাইন ডেস্ক১৪ নভেম্বর, ২০১৫ ইং ১৭:২০ মিঃ
দেশে ইনোভেটিভ এন্টারপ্রেওনারশীপ ইকোসিস্টেম তৈরিতে কাজ করছি : শামীম আহসান

বেসিস সভাপতি ও ফেনক্স ভেঞ্চার ক্যাপিটালের জেনারেল পার্টনার শামীম আহসান বলেছেন, সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড আয়োজনের প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে তরুণ উদ্যোক্তাদেরকে সিলিকন ভ্যালিসহ গ্লোবাল টেকনোলজি ইনোভেশন এবং কোম্পানিকে আন্তর্জাতিকভাবে প্রসার করার একটা প্লাটফর্ম দেয়া। এই ভিশন নিয়েই বেসিস, ফেনক্স ভেঞ্চার ক্যাপিটাল, সিডস্টারসসহ সহযোগি প্রতিষ্টানগুলোকে নিয়ে একসাথে বাংলাদেশে ইনোভেটিভ এন্টারপ্রেওনারশীপ ইকোসিস্টেম তৈরির জন্য কাজ করছি। বিজয়ীদেরকে এই প্লাটফর্মে সহযোগিতার মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে যাতে পরবর্তী গুগল, ফেসবুক বের করে নিয়ে আসা যায় তার চেষ্টা করা হচ্ছে।

শনিবার রাজধানীতে আয়োজিত সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার ঢাকা পর্বের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

রাজধানীর বনানীর নিউজক্রেড কার্যালয়ে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত কিস্টিয়ান মার্টিন ফস, ফাউন্ডার ইনস্টিটিউটের ঢাকা চ্যাপ্টারের পরিচালক সাজিদ রহমান, নিউজক্রেডের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ইরাজ ইসলাম, আইটিসির উর্ধ্বতন কর্মকর্তা মার্টিন লাব্বি, বিডি ভেঞ্চার লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক শাওকাত হোসেন প্রমুখ।


স্টার্টআপদের মানোন্নয়নে সহায়তা করতে কয়েকবছর ধরে আন্তর্জাতিকভাবে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হচ্ছে। দেশে এবারই প্রথমবারের মতো এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এবং সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড। পৃষ্ঠপোষকতায় রয়েছে জাতিসংঘের ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড সেন্টার (আইটিসি) ও বিডি ভেঞ্চার লিমিটেড। সহযোগিতা করছে বেটারস্টোরিজ লিমিটেড ও প্রেনিউরল্যাব।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য গত ১২ নভেম্বর থেকে আয়োজিত হয় তিনদিনব্যাপি বুটক্যাম্প। এর মাধ্যমে শনিবার দুপুর ২টায় বাংলাদেশ পর্যায়ে বিজয়ী ঘোষনা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়।

শনিবার আঞ্চলিক পর্যায়ে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় মোট লেনদেন, ভ্রমন এবং প্রযুক্তি এই তিনটি বিভাগে মোট ১৭টি স্টার্টআপ অংশ নেয়। এই পর্বে বিজয়ী হয়েছে ‘ম্যাডভাইজার’। পুরস্কার হিসেবে তারা পেয়েছে সুইজার ল্যান্ড ও সিলিকন ভ্যালির বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ভ্রমণ ও প্রশিক্ষণের জন্য টিকিট। এছাড়া পরবর্তী আরও ৫টি স্টার্টআপ সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের সৌজন্যে বিশেষ পুরস্কার পেয়েছে ‘টেকক্যাফে’, আইটিসির সৌজন্যে ওমেন অ্যাওয়ার্ড ক্যাটারগরিতে ‘শপফ্রন্ট’ পেয়েছে ইউরোপ ভ্রমনের টিকিট, বিডি ভেঞ্চারের সৌজন্যে ইভোলিউসিস পেয়েছে ৫০ হাজার টাকা, বেটারস্টোরিজের পক্ষ থেকে টেকসই অ্যাক্সিলারেটের টিকিট পেয়েছে ‘ঢাকা রাইড’ ও ফাউন্ডার ইনস্টিটিউটের পক্ষ থেকে ‘পাঠাও’ পেয়েছে ফাউন্ডার ইনস্টিটিউটের কার্যালয় ভ্রমণের টিকিট প্রদান করা হবে।

আঞ্চলিক পর্যায়ে বিজয়ী প্রতিষ্ঠানটি আগামীবছর সুইজারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত সিডস্টারস ওয়ার্ল্ডের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে। সেখানে বিজয়ীর জন্য থাকছে সর্বোচ্চ ৫ লাখ ডলার পুরস্কার। এছাড়া প্রতিযোগিতা চলাকালীন থাকবে আরও অনেক পুরস্কার, যার মধ্যে ইনমারসাট এবং এপি-সুইসের ৫০ হাজার ডলার সমমূল্যের পুরস্কার বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৪ এপ্রিল, ২০১৭ ইং
ফজর৪:১০
যোহর১১:৫৭
আসর৪:৩১
মাগরিব৬:২৭
এশা৭:৪৩
সূর্যোদয় - ৫:২৯সূর্যাস্ত - ০৬:২২