খেলাধুলা | The Daily Ittefaq

ভারতের বিরুদ্ধে আজ মাঠে বাংলাদেশ

ভারতের বিরুদ্ধে আজ মাঠে বাংলাদেশ
জান-ই-আলম, দুবাই থেকে২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং ০২:৫৫ মিঃ
ভারতের বিরুদ্ধে আজ মাঠে বাংলাদেশ
ভারতের চাপে নতজানু এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)। সংস্থাটির মেরুদণ্ডহীনতা এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বটাকে কার্যত ট্রফি জয়ের পোশাকি মহড়া বানিয়ে দিয়েছে। টুর্নামেন্টের ট্রফির মূল লড়াইটা শুরু হচ্ছে আজ। সুপার ফোর পর্ব থেকেই শিরোপা জয়ের প্রহর গুনবে দলগুলো।
 
আচমকা সূচি বদলের কোপানলে পড়ে অনেক প্রতিকূলতার গহ্বরে এখন বাংলাদেশ। গতকাল গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচটা খেলতে হয়েছে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে। আবুধাবিতে ম্যাচটা শেষ করে দুবাইয়ের টিম হোটেলে ফিরতে ফিরতে মাঝ রাত। ম্যাচ খেলার ধকল কাটিয়ে উঠার আগেই আজ আবার নামতে হবে মাঠে।
 
শিরোপা জয়ের স্বপ্ন নিয়েই এশিয়া কাপে এসেছে বাংলাদেশ। স্বপ্ন জয়ের মিশনে  প্রথম পা রাখতে হচ্ছে টানা দুদিন ম্যাচ খেলার দুরূহ চ্যালেঞ্জ নিয়ে। সুপার ফোর পর্বের প্রথম ম্যাচে আজ ভারতের বিরুদ্ধে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিকাল সাড়ে পাঁচটায় শুরু হবে ম্যাচটি। এদিকে আবুধাবিতে একই সময়ে অনুষ্ঠিত হবে আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের ভেতরে সুপার ফোরের আরেক ম্যাচ।
 
গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ নিয়ে তাই বাড়তি চিন্তা করতে চায়নি বাংলাদেশ। সূচি পরিবর্তনের খবর নিশ্চিত হতেই টাইগাররা চোখ রেখেছে সুপার ফোর পর্বে। গত বুধবার আইসিসি একাডেমিতে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাও বলেছেন, ভারতের বিরুদ্ধে আজকের ম্যাচ নিয়েই পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ।
 
মাশরাফি বলেছিলেন, ‘২১ তারিখের (আজ) ম্যাচের জন্য যতটা ধরে রাখা যায়, যতটা ফিট থাকা যায়, এটা নিয়েও ভাবা জরুরি। এখন সত্যি বলতে আফগানিস্তান ম্যাচ নিয়ে ভাবনা যতটুকু ছিল, সেটি তো আর নেই। এখন ২১ তারিখের (আজ) ম্যাচের পরিকল্পনাই বেশি করতে হচ্ছে।’
 
সুপার ফোর পর্বে টানা ম্যাচ খেলার চ্যালেঞ্জ পাড়ি দিতে হবে বাংলাদেশকে। গতকালের ম্যাচসহ ছয়দিনে খেলতে হবে চারটি ম্যাচ। বেশ তাড়াহুড়ো করে ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। মাশরাফি বলেছেন, ‘এই গরমে ৬ দিনে ৪টি ম্যাচ, যে কেউ সূচি করতে বললেই আমি নিশ্চিত যে রাজী হবে না কোনো দল। বলতে পারেন সব দলের জন্যই চ্যালেঞ্জিং।’
 
ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের জন্য শারীরিকভাবে সবাই ফিট না থাকলে কাজটা কঠিন হয়ে যাবে মনে করেন মাশরাফি। তিনি বলেছেন, ‘২১ তারিখে (আজ) এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ, তার আগেই গ্রুপ পর্যায়ের ম্যাচ খেলতে হবে। সুপার ফোরে প্রথম ম্যাচটিই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। সেই ম্যাচে আমরা সবাই শারীরিক ভাবে শতভাগ থাকতে না পারলে কাজটা কঠিন হয়ে যায়।’
 
ভারতের বিরুদ্ধে ৩৩ ম্যাচে মাত্র পাঁচটি জয় বাংলাদেশের। দুই দলের শেষ দুটি ম্যাচ ২০১৫ বিশ্বকাপ ও আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। যেখানে জিতেছে ভারত। একদিন বিশ্রাম নিয়ে আজ খেলতে নামবে রোহিত শর্মার দল। তবে ভারত শিবিরেও ইনজুরির হানা প্রকট আকার ধারণ করেছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে বোলিং করতে গিয়ে পিঠের চোটে পড়া হার্দিক পান্ডিয়ার এশিয়া কাপ শেষ হয়ে গেছে।
 
ইত্তেফাক/নূহু
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৪ অক্টোবর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৮
মাগরিব৫:২৯
এশা৬:৪২
সূর্যোদয় - ৫:৫৯সূর্যাস্ত - ০৫:২৪