ঢাকা শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯, ৮ চৈত্র ১৪২৫
৩০ °সে

চোট শঙ্কা নিয়েই হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর মিশনে বাংলাদেশ

চোট শঙ্কা নিয়েই হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর মিশনে বাংলাদেশ
ফাইল ছবি

বিশ্বকাপ প্রস্তুতির অংশ হিসেবে নিউজিল্যান্ড সফর করছে বাংলাদেশ দল। তবে এই সফরে ওয়ানডে সিরিজটা সুখকর হয়নি মাশরাফি বাহিনীর জন্য। কারণ ইতোমধ্যে তিন ম্যাচ সিরিজের দুটিতেই বড় ব্যবধানে হেরে সিরিজ হাতছাড়া হয়েছে। এখন শেষ ম্যাচ জিতে হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর মিশন বাংলাদেশের। সেই মিশনে বুধবার ভোররাত ৪টায় মাঠে নামার আগে চোট নিয়েই বেশি ভাবতে হচ্ছে বাংলাদেশকে।

আগের দুই ম্যাচে টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা ছিল চরম। সেখানে ব্যতিক্রম ছিলেন মোহাম্মদ মিঠুন। পরপর দুই ম্যাচেই করেন হাফসেঞ্চুরি। ডানেডিনে শেষ ম্যাচে সেই মিঠুনকে ছাড়াই মাঠে নামতে হচ্ছে মাশরাফিকে। হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট সেরে ওঠতে তার অন্তত: ১০-১২ দিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন দলের ম্যানেজার খালেদ মাসুদ পাইলট। তবে চোটের কারণে শঙ্কায় থাকা মুশফিকুর রহিমের খেলার ব্যাপারে আশাবাদী তিনি।

শেষ ম্যাচে ব্যাটিং ব্যর্থতা কাটানোর পথ খুঁজছে সফরকারী বাংলাদেশ। সেক্ষেত্রে কিউই বোলারদের বিপক্ষে ওপেনার তামিম ইকবালকে কীভাবে আরও ভালোভাবে কাজে লাগানো যায়, সেই বিষয়টি ভাবা হচ্ছে।

প্রথম দুটি ম্যাচে বাংলাদেশের বোলাররাও কাঙ্ক্ষিত নৈপুণ্য দেখাতে পারেননি। বরাবরই নিউজিল্যান্ডের পেস পেসবান্ধব হলেও রুবেল হোসেন এবার দলে নেই। তার অনুপস্থিতিতে সাইফউদ্দিন ও মুস্তাফিজরা নিজেদের সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি। বল হাতে কাঙ্ক্ষিত সাফল্য পাননি অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও।

এদিকে সিরিজ নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় নিউজিল্যান্ড আছে কিছুটা নির্ভার অবস্থায়। তাই শেষ ম্যাচে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে। তার জায়গায় দলকে নেতৃত্ব দেবেন টম লাথাম। আর ব্যাটসম্যান হিসেবে উইলিয়ামসনের পরিবর্তে দলে অন্তর্ভূক্ত হয়েছেন কলিন মুনরো। এই পরিবর্তনের উদ্দেশ্য হচ্ছে বিশ্বকাপকে সামনে রেখে লোয়ার-মিডল অর্ডারে ব্যাটিংয়ের পরীক্ষাটা করে রাখা।

আরও পড়ুন: পদ্মার তীর সংরক্ষণ বাঁধ নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ

নিউজিল্যান্ড দুটি ম্যাচ জিতলেও ব্যাটসম্যান লাথাম, জিমি নিশাম ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি। এ অবস্থায় ব্যাটিংয়ে তাদের সামর্থটা যাচাইয়ের জন্যই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ : তামিম ইকবাল, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), মুমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদি হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক) ও মুস্তাফিজুর রহমান।

নিউজিল্যান্ডের সম্ভাব্য একাদশ : মার্টিন গাপটিল, হেনরি নিকলস, কলিন মুনরো, রস টেলর, টম লাথাম (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), জিমি নিশাম, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, টড অ্যাশলে, লুকি ফার্গুসন, ম্যাট হেনরি ও ট্রেন্ট বোল্ট।

ইত্তেফাক/কেআই

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ মার্চ, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন