বাণিজ্য | The Daily Ittefaq

‘রাসায়নিক দ্রব্যের শান্তিপূর্ণ ব্যবহারে বাংলাদেশ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ’

‘রাসায়নিক দ্রব্যের শান্তিপূর্ণ ব্যবহারে বাংলাদেশ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ’
অনলাইন ডেস্ক১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ইং ১৯:০৬ মিঃ
‘রাসায়নিক দ্রব্যের শান্তিপূর্ণ ব্যবহারে বাংলাদেশ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ’
ফাইল ছবি
 
বাংলাদেশ রাসায়নিক দ্রব্যের শান্তিপূর্ণ ব্যবহারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ উল্লেখ করে তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, রাসায়নিক দ্রব্যের নিরাপদ এবং সদ্ব্যবহার নিশ্চিত করতে সরকার আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে।
 
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে পারমাণবিক চুল্লি নির্মাণের কাজ চলছে। এর সদ্ব্যবহার নিশ্চিত করতে সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।
 
আজ বুধবার ‘অ্যাডভান্সড কেমিকেল সেফটি এন্ড সিকিউরিটি ম্যানেজমেন্ট’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সেমিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতার এসব কথা বলেন তিনি।
 
ঢাকার অভিজাত একটি হোটেলে রাসায়নিক অস্ত্র কনভেনশন’র বাংলাদেশ জাতীয় কর্তৃপক্ষ এবং অর্গানাইজেশন ফর দ্য প্রহিবিশন অব কেমিকেল উইপন্স যৌথভাবে এই সেমিনারের আয়োজন করে।
 
সেমিনারে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, কৃষি, শিল্প ও অন্যান্য ক্ষেত্রে রাসায়নিক দ্রব্যের গুরুত্ব ও একই সঙ্গে এর অপব্যবহারের ক্ষতিকর দিকগুলো নিয়ে আলোচনা করে সঠিক করণীয় নির্ধারণ করতে হবে। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে রাসায়নিক দ্রব্যের শান্তিপূর্ণ ব্যবহার কিভাবে নিশ্চিত করা যায়, তা এ সেমিনারে গুরুত্ব পাবে।
 
বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতির উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতির মূল স্তম্ভ হলো- ‘সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারো সঙ্গে বৈরিতা নয়’। 
 
বাংলাদেশ বিশ্ব মানবতা ও বিশ্ব শান্তি রক্ষায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতির পুনরুল্লেখ করে তোফায়েল বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ।
 
দীর্ঘদিন যাবৎ বাংলাদেশ জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে সর্বাধিক সংখ্যক শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী দেশ হিসেবে সুনামের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ শান্তির অগ্রদূত হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করতে পেরেছে। রাসায়ানিক দ্রব্যের নিরাপদ ও শান্তিপূর্ণ ব্যবহারের মাধ্যমে রাসায়ানিক অস্ত্রমুক্ত পৃথিবী গড়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশ একযোগে কাজ করছে।
 
উল্লেখ্য, সেমিনারে অর্গানাইজেশন ফর দ্য প্রহিবিশন অব কেমিকেল উইপন্স সদস্যরাষ্ট্রসমূহ থেকে ১৭ এবং বাংলাদেশের বিভিন্ন সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের ২০ জন প্রতিনিধি অংশ নিচ্ছে।
 
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন অর্গানাইজেশন ফর দ্যা প্রহিবিশন অব কেমিকেল উইপন্স-এর ডেপুটি ডিরেকটর জেনারেল হামিদ আলী। 
 
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রাসায়নিক অস্ত্র কনভেনশন-এর বাংলাদেশ জাতীয় কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লেফটেন্যান্ট জেনারেল মো. মাহফুজুর রহমান। বাসস
 
ইত্তেফাক/কেকে
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২২ নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ফজর৪:৫৯
যোহর১১:৪৫
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:১৮সূর্যাস্ত - ০৫:১০