অর্থনীতি | The Daily Ittefaq

দুই বছরেও নতুন ভবনে যাওয়া নিয়ে সংশয় বিজিএমইএ নেতাদের

দুই বছরেও নতুন ভবনে যাওয়া নিয়ে সংশয় বিজিএমইএ নেতাদের
ইত্তেফাক রিপোর্ট২১ অক্টোবর, ২০১৭ ইং ২০:৪১ মিঃ
দুই বছরেও নতুন ভবনে যাওয়া নিয়ে সংশয় বিজিএমইএ নেতাদের
আগামী দুই বছরের আগে তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ নিজস্ব নতুন ভবনে যাওয়া নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন সংগঠনের নেতারা। তারা বলছেন, এখন কাজ শুরু করলেও দুই বছরের আগে নতুন ভবনে যাওয়া সম্ভব নয়। 
 
শনিবার বিজিএমইএ’র বোর্ড সভায় সদস্যরা এমন মন্তব্য করেন। কেননা সরকারের কাছ থেকে কেনা উত্তরার জমির দলিলই হয়নি এখনও। বর্তমানে কাওরানবাজারে অবস্থিত অবৈধ ভবনটি ভাঙ্গতে সম্প্রতি আদালতের কাছ থেকে আরও সাত মাস সময় পেয়েছে বিজিএমইএ। এরপর আর সময় বাড়ানো হবেনা বলেও জানিয়েছেন আদালত।
  
ওই বোর্ড সভায় সভাপতিত্ব করেন বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান। যোগাযোগ করা হলে ইত্তেফাককে তিনি বলেন, চলতি সপ্তাহ নাগাদ জমির দলিল পাওয়া যাবে। এর পর ভবন তৈরির জন্য প্রাথমিক কাজ শুরু করা হবে। খুব দ্রুতই নতুন ভবনের যাওয়ার চেষ্টা করছি। তবে এখন কাজ শুরু করলেও আগামী দুই বছরের আগে নতুন ভবনে যাওয়া নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন অনেক সদস্যই। 
 
নতুন ভবন তৈরি করার জন্য রাজধানীর উত্তরা তৃতীয় প্রকল্পে ১৭ নম্বর সেক্টরে সাড়ে পাঁচ বিঘা জমি বাজারমূল্যের চাইতে অর্ধেক দামে বরাদ্দ পেয়েছে বিজিএমইএ। দীর্ঘদিন থেকেই ওই জমিতে ভবন তৈরির কথা বলে আসলেও কার্যত এখনও সেখানে কোন কাজ শুরু হয়নি। 
 
২০১১ সালে বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ জমির স্বত্ব না থাকা ও জলাধার আইন লঙ্ঘন করে বিধি বহির্ভূতভাবে নির্মাণ করায় বিজিএমইএ ভবন ভাঙার রায় দেন। এই রায়ের বিরুদ্ধে বিজিএমইএ আপিল করলে গত বছরের জুনে প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার নেতৃত্বে চার সদস্যের বেঞ্চ তা খারিজ করে দেন। এর রিভিউ আবেদনও খারিজ হয়। চলতি মাসে ভবনটি ভাঙার নির্দেশ ছিল আপিল বিভাগের। তবে এক বছর সময় চেয়ে আবেদন করলে গত ৮ অক্টোবর সাত মাস সময় দেন আদালত। এরপর আর সময় বাড়ানো হবেনা বলেও আদালত বিজিএমইএকে জানিয়ে দেন। 
 
ইত্তেফাক/এমআই
 
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২১ জুন, ২০১৮ ইং
ফজর৩:৪৩
যোহর১২:০০
আসর৪:৪০
মাগরিব৬:৫১
এশা৮:১৬
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৬