সারাদেশ | The Daily Ittefaq

সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমাদের স্বপ্নের বাংলাদেশ বাস্তবায়ন হচ্ছে : আনোয়ার হোসেন মঞ্জু

সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমাদের স্বপ্নের বাংলাদেশ বাস্তবায়ন হচ্ছে : আনোয়ার হোসেন মঞ্জু
নাসিম আলী, পিরোজপুর অফিস২০ জুন, ২০১৭ ইং ০২:৩৯ মিঃ
সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমাদের স্বপ্নের বাংলাদেশ বাস্তবায়ন হচ্ছে : আনোয়ার হোসেন মঞ্জু

পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বলেছেন, আমাদের প্রত্যাশা ছিল এমন স্বাধীন বাংলাদেশ যা হবে সৌহার্দ্যপূর্ণ, শান্তিময় তথা সকলের বসবাস উপযোগী একটি সমৃদ্ধ দেশ। ছাত্র জীবনে এরকম স্বপ্নের একটি সুন্দর দেশ প্রতিষ্ঠার জন্য আমরা যথাসাধ্য অবদান রাখতে সচেষ্ট ছিলাম। যে স্বপ্ন আজ বাস্তবায়িত হচ্ছে সকলের ঐক্যবদ্ধ ও সম্মিলিত প্রচেষ্টায়।

তিনি গতকাল সোমবার পিরোজপুর পুলিশ   লাইনসে জেলা পুলিশ আয়োজিত এক ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আরও বলেন, আল্লাহর কাছে আমাদের ক্ষমা ও পানাহ চাইতে হবে। কারণ আমরা সকলেই কম বেশি পাপ করি। আল্লাহর ইচ্ছায় আমরা পিরোজপুর জেলা পুলিশের ইফতার মাহফিলে অংশ নেওয়ার সৌভাগ্য অর্জন করেছি। মাহে রমজানের এই দিনে যেমন মহান সৃষ্টিকর্তার রহমত লাভ করতে সক্ষম হয়েছি তেমনি এ রহমত স্বরূপ আজকের এই দিনটি বর্ষণমুখর থাকায় সবার জন্য তা স্বস্তি ও আরামদায়ক হয়েছে। পিরোজপুর জেলা শহর এ অঞ্চলের সামাজিক, রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক কেন্দ্রস্থল। এখানে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের ন্যায় ভিত্তিক আচরণ বিরাজমান থাকায় তার সুফল এলাকাবাসী পাচ্ছেন। পিরোজপুর হবে একটি আদর্শ জেলা ও স্থান। যা জন্য সকলেরই প্রচেষ্টা বিদ্যমান। পাশাপাশি আমরা যে বাংলাদেশ এবং বাঙালির সুন্দর জীবনের জন্য প্রচেষ্টা চালিয়ে ছিলাম তা সকলের দলমত নির্বিশেষে বাস্তবায়ন প্রচেষ্টার মাধ্যমে আমাদের অর্জনও উল্লেখযোগ্য। গত ৩০-৩২ বছরের পথ পরিক্রমায় সকল ক্ষেত্রে সকল কাজে সবার অংশগ্রহণে মানগত নিরিখে  প্রণিধানযোগ্য মাত্রায় তা প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। যার জন্য আল্লাহর কাছে শুকরিয়া ও জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানানো সকলের কর্তব্য।    

ইফতার মাহফিলে মোনাজাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদীর্ঘ জীবন, সুস্বাস্থ্য ও উজ্জ্বল কর্মজীবন কামনা করা হয়। ইফতার মাহফিলে পিরোজপুর জেলা শহরের বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তা, সরকারি কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, ইমাম, ব্যবসায়ী, মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, সাংবাদিক, সমাজসেবীসহ অনেকে শরিক হন। এ ছাড়া জেলা ও বিভিন্ন থানার পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যরা ইফতারে অংশ নেন।

পুলিশ সুপার মো. ওয়ালিদ হোসেনের সভাপতিত্বে জেলা প্রশাসক মো. খায়রুল আলম সেখ, জেলা ও দায়রা জজ গোলাম কিবরিয়া, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদ মামুন চৌধুরী প্রমুখ অংশগ্রহণ করেন। আরও অংশ নেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন মহারাজ, পৌর মেয়র মো. হাবিবুর রহমান মালেক, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খালেক, কাউখালীর উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম আহসান কবির, ভাণ্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আতিকুল ইসলাম তালুকদার উজ্জল প্রমুখ জনপ্রতিনিধিবৃন্দ। রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের মধ্যে ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল হাকিম হাওলাদার, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা ইসাহাক আলী খান পান্না, জাতীয় পার্টি-জেপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান মাহিবুল হোসেন মাহিম, হুমায়ুন কবির তালুকদার রাজু, সিদ্দিকুর রহমান টুলু, ইউসুফ আলী আকন প্রমুখ।

গতকাল সোমবার আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর উপস্থিতিতে পিরোজপুর জেলার ইন্দুরকানী উপজেলার ইন্দুরকানী ডিগ্রী কলেজ ও  পাড়েরহাট বাসস্ট্যান্ডে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নে দুস্থ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে সুবিধা বঞ্চিত অসচ্ছল পরিবারের মাঝে কাপড় বিতরণ করা হয়।  এ সব কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন ইন্দুরকানী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফায়জুল কবির তালুকদার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদা বেগম, পত্তাশী ইউপি চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন, পাড়েরহাট ইউপি চেয়ারম্যান ও জেপির উপজেলা সহ সভাপতি গোলাম সরোয়ার বাবুল প্রমুখ।

পরিবেশ ও বন  মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বন অধিদপ্তরের আওতাধীন ‘বাংলাদেশের পাঁচটি উপকূলীয় জেলায় বনায়ন প্রকল্পের’ উদ্যোগে ইন্দুরকানী ডিগ্রী কলেজ মাঠে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। এ সময় তিনি একটি গাছের চারা রোপণ করেন। কর্মসূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন বাগেরহাটের বন বিভাগীয় কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম, ইন্দুরকানীর নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নূরুল হুদা প্রমুখ।

ভাণ্ডারিয়া সংবাদদাতা জানান, গতকাল সোমবার বিকালে পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি ভাণ্ডারিয়া উপজেলার নদমূলা-শিয়ালকাঠি  ইউনিয়নে প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও প্রতিষ্ঠানে আর্থিক সাহায্য ও পুনর্বাসনের লক্ষ্যে প্রাকৃতিক দুর্যোগ উপ-খাত হতে প্রাপ্ত অর্থের চেক বিতরণ করেন। নদমূলা বাজার সাইক্লোন শেল্টার প্রাঙ্গণে এ বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভাণ্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আতিকুল ইসলাম তালুকদার উজ্জল, নদমূলা ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল কবির তালুকদার বাবুল, ধাওয়া ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান টুলু প্রমুখ। এ ছাড়া দুস্থ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে এ ইউনিয়নের সুবিধা বঞ্চিত অসচ্ছল পরিবারের মাঝে মন্ত্রীর উপস্থিতিতে এ সময় কাপড় বিতরণ করা হয়।

 পাহাড় কাটা বন্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার উদ্যোগ

নেওয়া হয়েছে :সংসদে প্রশ্নোত্তরে পরিবেশ মন্ত্রী

পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু জাতীয় সংসদকে জানিয়েছেন, পাহাড় কাটার বিরুদ্ধে দ্রুত ও জোরালো ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যে নিয়মিত মামলা ও এনফোর্সমেন্ট কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি মোবাইল কোর্ট পরিচালনার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গতকাল সোমবার সংসদে টেবিলে উপস্থাপিত প্রশ্নোত্তরে জামালপুর-২ আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য ফরিদুল হক খানের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী একথা জানান।

পরিবেশ মন্ত্রী জানান, জলাভূমি ভরাট করার জন্য চলতি বছরের এপিল মাস পর্যন্ত ৩ কোটি ৮ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ আদায় করা হয়েছে। তিনি জানান, জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ড হতে সারাদেশে বনায়নের লক্ষ্যে ইতিমধ্যে ১৪৪ কোটি ৩৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ১৪টি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।

আরেক প্রশ্নের জবাবে আনোয়ার হোসেন মঞ্জু সংসদকে জানান, শিল্পবর্জ্য থেকে দূষণ হ্রাসের লক্ষ্যে ২০৩০ সালের মধ্যে তরল বর্জ্য নির্গমনকারী সকল শিল্প প্রতিষ্ঠানে ‘জিরো টলারেন্স’ পলিসি বাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। শিল্প দূষণ থেকে সৃষ্ট পানি যাতে দূষিত না হয়, সেজন্য কেন্দ্রীয় বর্জ্য পরিশোধনাগার স্থাপনপূর্বক ১০টি ইকোনোমিক জোন স্থাপনের পরিকল্পণা গ্রহণ করা হয়েছে। এ বছরের এপ্রিল পর্যন্ত ২ হাজার ৮৯১টি প্রতিষ্ঠান থেকে পরিবেশ দূষণের দায়ে ২৩৪ কোটি ৮ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ ধার্য্য এবং এর মধ্যে ১৪৭  কোটি ৯৩ লাখ টাকা আদায় করা হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে ১ হাজার ৫৫৩টি শিল্প প্রতিষ্ঠানে ইটিপি স্থাপিত হয়েছে। তিনি জানান, ঢাকার চারপাশে বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, বালু ও শীতলক্ষ্যা নদীকে পরিবেশগত সঙ্কটাপন্ন এলাকা (ইসিএ) হিসেবে ঘোষণা করে এ ব্যবস্থাপনার জন্য কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৯ নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ফজর৫:১৫
যোহর১১:৫৬
আসর৩:৪০
মাগরিব৫:১৯
এশা৬:৩৬
সূর্যোদয় - ৬:৩৫সূর্যাস্ত - ০৫:১৪