সারাদেশ | The Daily Ittefaq

তেতুলিয়ার ভাঙনে বিলীন হচ্ছে ভোলার মুজিবনগর

তেতুলিয়ার ভাঙনে বিলীন হচ্ছে ভোলার মুজিবনগর
শশীভূষণ-দক্ষিণ আইচা (ভোলা) সংবাদদাতা১৮ জুলাই, ২০১৭ ইং ০৩:২৭ মিঃ
তেতুলিয়ার ভাঙনে বিলীন হচ্ছে ভোলার মুজিবনগর

ভোলার দক্ষিণ আইচা থানার মুজিবনগর ইউনিয়ন তেতুলিয়া নদীর ভাঙনে বিলীন হয়ে গেছে ২.৫ কি.মি বেড়ি বাঁধসহ ৪ শতাধিক ঘরবাড়ি। মুজিবনগরবাসী নদী ভাঙনের আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে। জরুরি ভিত্তিতে ভাঙন রোধে ব্যবস্থা না নিলে মুজিবনগর বাজার, ইউনিয়ন পরিষদ, বাংলাবাজার ও বাংলাবাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয় রক্ষা করা যাবে না।

মুজিবনগর ইউপি চেয়ারম্যান আ. অদুদ মিয়া জানান, নদী ভাঙনে মুজিবনগর ইউনিয়নের নয়টি ওয়ার্ডের মধ্যে গত এক সপ্তাহে পাঁচটির ৪ শতাধিক পরিবার গৃহহীন হয়ে গেছে। মুজিবনগর মত্স্যঘাট, বোয়ালখালী বাজারসহ চরমনোহর বাংলাবাজার পর্যন্ত ২.৫ কি.মি বেড়ি বাঁধ, বেসরকারি সংস্থা কোস্ট ট্রাস্টের কার্যালয়, ক্লিনিক ও পোস্ট অফিস নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। দ্রুত প্রতিরোধের ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে এই বর্ষা মৌসুমে মুজিবনগর ইউনিয়ন ব্যাপক ভাঙনের শিকার হবে।

চরফ্যাশন পানি উন্নয়ন বোর্ড ডিভিশন-২ এর মাধ্যমে ১৯৯০ সালে মুজিবনগরে প্রথম বেড়ি বাঁধ নির্মাণ করা হয়। ২০১৪ সালে নতুন করে আরো তিন কি.মি বেড়ি বাঁধ নির্মাণ করা হয়। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী কায়ছার আলম জানান, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ভাঙন এলাকাগুলোতে জরুরি ভাঙন প্রতিরোধে পানি উন্নয়ন বোর্ড কাজ শুরু করবে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব জানান, চরফ্যাশনের শশীভূষণ ও দক্ষিণ আইচা থানার জাহানপুর, মানিকা ও মুজিবনগরের জন্য ৫৭ কি.মি নতুন বাঁধ নির্মাণে ২শ কোটি টাকার একটি প্রকল্প পানি উন্নয়ন বোর্ডে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। যার মধ্যে ২২ কি.মি বাঁধ নির্মিত হবে মুজিবনগর ইউনিয়নে। আগামী ডিসেম্বর নাগাদ এ প্রকল্প অনুমোদন হবে এবং বাস্তবায়ন শুরু হবে। তেতুলিয়া নদীর ভাঙনে জরুরি ভিত্তিতে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় বাঁধ সংস্কারের জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং
ফজর৪:৩৩
যোহর১১:৫১
আসর৪:১২
মাগরিব৫:৫৫
এশা৭:০৮
সূর্যোদয় - ৫:৪৮সূর্যাস্ত - ০৫:৫০