সারাদেশ | The Daily Ittefaq

সমষ্টিগত উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে সক্ষম সংগঠন গড়তে হবে : আনোয়ার হোসেন মঞ্জু

সমষ্টিগত উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে সক্ষম সংগঠন গড়তে হবে : আনোয়ার হোসেন মঞ্জু
সমষ্টিগত উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে সক্ষম সংগঠন গড়তে হবে : আনোয়ার হোসেন মঞ্জু

জাতীয় পার্টি-জেপি’র চেয়ারম্যান এবং পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি বলেছেন, আমরা দেশে স্বাভাবিক রাজনীতি চাই। আর এই রাজনীতি তথা ভোটাধিকার রক্ষার জন্য এমন সংগঠন গড়তে হবে যারা ব্যক্তি স্বার্থের জন্য নয় সমষ্টিগত উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে। যার মধ্যদিয়ে মানুষকে উন্নত নাগরিক করে গড়ে তুলতে হবে।

গতকাল বুধবার বিকালে পিরোজপুর জেলার কাউখালী উপজেলার শিয়ালকাঠি ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি-জেপি’র ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, মানুষ যদি উন্নত নাগরিক হতে না পারে তাহলে স্বাধীনতা পরবর্তী রাজনীতির সাথে পরাধীন আমলের রাজনীতির কোনো পার্থক্য থাকবে না। স্বাধীনতা কী, স্বাধীনতার সুফল কী তা মানুষকে বোঝানোর  জন্য সংগঠন করতে পারলে জনগণ তার অধিকার তথা ন্যায্য পাওনা বুঝে নিতে সক্ষম হবে। জনগণ যদি অধিকার সচেতন হয় তাহলে রাষ্ট্র থেকে বরাদ্দকৃত সম্পদের অপচয়, আত্মসাত্, লুটপাট ইত্যাদি বন্ধ করে এর সদ্ব্যবহার নিশ্চিত করা সম্ভব হয়। আমরা যে সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেছি তার সাথে অন্যদের ভিন্নতা রয়েছে। এ সংগঠনের মধ্যদিয়ে এমন চরিত্রের নেতা-কর্মী তৈরি হবে যারা নির্বাচনের সময় ভোট কেটে নিতে না পারে তার জন্য কেন্দ্র পাহারা দেওয়ার ক্ষমতা রাখবেন। যার মধ্যদিয়ে ভোটের অধিকার নিশ্চিত হবে, জনগণ জিতবে এবং জনগণ জিতলেই সরকার জিতবে, দেশ জিতবে। যেদিন এই সংগঠন গড়া সম্ভব হবে সেদিন রাজনীতি ঠিক হবে, অর্থনীতি ঠিক হবে, দেশ ঠিক হবে। আজ দেশে রাজনীতির প্রতি মানুষ অনীহা অনুভব করে। নির্বাচন হবে কি হবে না এই সংশয়ে ভোগে। এই অবস্থা চলতে থাকলে রাজনীতিতে অনিশ্চয়তা দেখা দিতে পারে। এই গতানুগতিক রাজনীতি আমরা পছন্দ করি না। এ ধরনের রাজনীতি দ্বন্দ্ব-সংঘাত সৃষ্টির সহায়ক এবং এই সুযোগে মহল বিশেষের রাষ্ট্রীয় সম্পদ আত্মসাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পায়।   

আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বলেন, এমন সংগঠন থাকা উচিত যারা স্থানীয় উন্নয়নকে সংহত করতে বিশেষ দায়িত্ব নিতে সক্ষম। অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চালু রাখতে রাস্তা-ঘাট, পুল-কালভার্ট ইত্যাদি যোগাযোগ অবকাঠামোকে কাজে লাগাতে হবে। এ উদ্দেশ্যে তৃণমূলের জনগণকে সম্পৃৃক্ত করে পরিকল্পনা প্রণয়নে তাদের মতামত গ্রহণ করা প্রয়োজন। যার মধ্যদিয়ে মানুষ তার চাহিদা পূরণের জন্য যথাযথ ভূমিকা রাখতে পারে। মানুষকে সচেতন ও শিক্ষিত হতে হবে এবং উন্নয়ন হবে পরিকল্পিত। যদিও এক সাথে সব উন্নয়ন সম্ভব নয় তারপরও জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে সমন্বিত পরিকল্পনা গ্রহণ করে সড়ক যোগাযোগ, বিদ্যুত্, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ইত্যাদি ক্ষেত্রে প্রকল্প নিতে হয়। ইউনিয়ন ও উপজেলা সড়ক অবকাঠামো নির্মাণ কাউখালী-ভান্ডারিয়াসহ এ অঞ্চলে বহুলাংশে গত ৩২ বছরে সম্পন্ন হয়েছে। কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য প্রকল্পে হাসপাতাল ভবন মেরামত ও সম্প্রসারণ নিয়ে দীর্ঘদিনের অচল অবস্থা দূর করে নতুন টেন্ডারের মাধ্যমে সমস্যার সমাধানে আমরা সক্ষম হয়েছি। এ ক্ষেত্রে রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় মহল বিশেষের ভূমিকা ছিল অনভিপ্রেত। যা আমরা সমর্থন করি না। উন্নয়ন ক্ষেত্রে জনগণের স্বার্থকে প্রাধান্য দিয়ে আমরা রাজনীতি করি বলে গত ৩২ বছর মানুষের সাথে আছি। এ সময়ের মধ্যে ১৭ বছরই সরকারে থাকার সৌভাগ্য হয়েছে। ভারত বর্ষে রাষ্ট্র পরিচালনায় ঐক্যমতের সরকার ব্যবস্থার দৃষ্টান্ত তুলে ধরে পরিবেশ ও বন মন্ত্রী বলেন, ১৯৯৬ সালে এবং বর্তমান মহাজোট সরকারে আমাদের অবস্থান জনকল্যাণমুখী রাজনীতিরই পরিচায়ক। যার প্রতি জনগণের যেমন সমর্থন রয়েছে তেমনি আল্লাহর রহমতও বিদ্যমান। আর এই বিশ্বাস ও আদর্শকে ভিত্তি করে আমরা রাজনীতি করি। যা আগামীতেও অব্যহত থাকবে।

স্থানীয় জোলাগাতি মুসলিম আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে ইউনিয়ন জেপি’র সভাপতি এডভোকেট হেমায়েত উদ্দিন তালুকদারের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি সংগঠনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ভাণ্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আতিকুল ইসলাম তালুকদার উজ্জল, প্রচার সম্পাদক এডভোকেট হুমায়ুন কবির তালুকদার রাজু, জেপি’র কেন্দ্রীয় যুব বিষয়ক সম্পাদক ও যুব সংহতির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম, উপজেলা জেপি’র সদস্য সচিব ও ধাওয়া ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান টুলু, কাউখালী উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম নসু, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সিকদার মো. দেলোয়ার হোসেন, ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজাহান মোল্লা, ওয়ার্ড সভাপতি মোজাম্মেল হক, আহসান কবির, উপজেলা যুব সংহতির সদস্য সচিব মঞ্জুরুল মাহফুজ পায়েল, ছাত্র সমাজের আহ্বায়ক জিয়াউল হাসান জুয়েল প্রমুখ। জেপি’র উপজেলা সভাপতি মাহবুবুর রহমান খান কাউন্সিল সম্মেলন উদ্বোধন করেন।

পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বিকালে কাউখালী উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও অভিভাবকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন। এখানে কাউখালীর ইউএনও (ভারপ্রাপ্ত) মাধুরি রায়ের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম আহসানর কবির, ভাইস চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান মিঠু, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ মজুমদার, ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুর রশীদ মিল্টন, ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ খান খোকন ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি সুব্রত রায়।

মন্ত্রী এসময় উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে মিড-ডে মিলের টিফিন বক্স, হাই স্কুল লাইব্রেরির আসবাবপত্র ও বৈজ্ঞানিক সরঞ্জাম বিতরণ করেন।

পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এরপর কাউখালী কেন্দ্রীয় পূজামণ্ডপ প্রাঙ্গণে শারর্দীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে উপজেলার সকল পূজা উদযাপন কমিটির সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। উপজেলা পূজা পরিষদের সভাপতি উপাধ্যক্ষ সঞ্জিত কুমার সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন পূজা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শেখর চন্দ্র দে ও অধ্যক্ষ অলক কর্মকার।  মন্ত্রী এখানে বিভিন্ন পূজা মন্ডপে দুস্থ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে আর্থিক অনুদান বিতরণ করেন।

সন্ধ্যার পর জেপি’র চেয়ারম্যান এবং পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু কাউখালী উপজেলার সয়না-রঘুনাথপুর ইউনিয়নের উত্তর রঘুনাথপুর হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন। এখানে আরো বক্তব্য রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ মিয়া মনু ও হাফেজ মো. সোলায়মান।

এর আগে মন্ত্রী উক্ত ইউনিয়নে বাংলাদেশ জলবায়ু ট্রাস্ট ফান্ডের অর্থায়নে সোনাপুর ফেরিঘাট থেকে শীর্ষা হয়ে দক্ষিণ গোয়ালতা পর্যন্ত সড়ক পুনর্নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন। এ সময় তিনি মোনাজাতে অংশ নেন। রাতে মন্ত্রী সয়না-রঘুনাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে ইউনিয়নের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সমূহের ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বিনামূল্যে স্কুল ড্রেস বিতরণ করেন।

ভাণ্ডারিয়া সংবাদদাতা ফজলুর রহমান জানান, পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু গতকাল বুধবার সকালে ভাণ্ডারিয়া উপজেলার ভিটাবাড়িয়া ইউনিয়নের সেনেরহাট থেকে ভিটাবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ পর্যন্ত এলজিইডি’র সড়ক উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন ভাণ্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আতিকুল ইসলাম তালুকদার উজ্জল, ভিটাবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান খান এনামুল কবির পান্না, ইউনিয়ন জেপির সাধারণ সম্পাদক রেজা আহম্মদ দুলাল প্রমুখ।

ইত্তেফাক নূহু

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৪ নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ফজর৪:৫৯
যোহর১১:৪৫
আসর৩:৩৫
মাগরিব৫:১৪
এশা৬:৩০
সূর্যোদয় - ৬:১৮সূর্যাস্ত - ০৫:০৯