সারাদেশ | The Daily Ittefaq

ঝিনাইগাতী গারো পাহাড়ে বৃক্ষ উজাড়, হুমকিতে প্রাণ বৈচিত্র্য

ঝিনাইগাতী গারো পাহাড়ে বৃক্ষ উজাড়, হুমকিতে প্রাণ বৈচিত্র্য
ঝিনাইগাতী (শেরপুর) সংবাদদাতা৩১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং ২৩:৩৪ মিঃ
ঝিনাইগাতী গারো পাহাড়ে বৃক্ষ উজাড়, হুমকিতে প্রাণ বৈচিত্র্য

ঝিনাইগাতী উপজেলার গারো পাহাড়ে সংরক্ষিত বনাঞ্চলে বৃক্ষ লুটপাটের মহোত্সব চলছেই। বন দস্যুরা প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার শাল, গজারীসহ বিভিন্ন প্রজাতির বৃক্ষ লুট করে দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচার করছে। প্রতিকারের উদ্যোগ না থাকায় বন উজাড় হওয়ার পাশাপাশি প্রাণ বৈচিত্র্য ও পরিবেশের ভারসাম্য হুমকিতে পড়ছে।

অভিযোগ রয়েছে, অনেক সময় বনের খাঁড়া গাছ ফিতা দিয়ে ঘনফুট মেপে তা বিক্রি করে দেয়া হচ্ছে। উপজেলা সদর বাজারসহ বিভিন্ন হাট-বাজারগুলোতে অবাধে বিক্রি হচ্ছে এ সব চোরাই কাঠ। বিভিন্ন সময় সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর নাম ভাঙ্গিয়েও পাচার করা হচ্ছে সংরক্ষিত বনাঞ্চলের কাঠ। অপরদিকে শেরপুর জেলা সদরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের ইট ভাটাগুলোতে কয়লার পরিবর্তে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে কাঠ। আর এ সব জ্বালানি সংগ্রহ করা হচ্ছে গারো পাহাড়ের বনাঞ্চল থেকে।

সংরক্ষিত বনাঞ্চলের তাওয়াকুচা, গুরুচরন দুধনই, পানবর, ছোট গজনী, হালচাটি, বাকাকুড়া, গান্ধিগাঁও, নওকুঁচি, রাংটিয়া, সন্ধ্যাকুড়াসহ বিভিন্ন স্থানে অর্ধশতাধিক পাল্লা ঝুলিয়ে অবাধে বিক্রি হচ্ছে চোরাই কাঠ। বনের বৃক্ষ নিধনের পাশাপাশি বন দস্যুরা নিলামে বিক্রি করা বাগানের গাছের গুঁড়িগুলো উত্পাটন করে তা মণ দরে বিক্রি করে আসছে। কাঠ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, প্রতিমণ জ্বালানি কাঠ বিক্রি করা হচ্ছে একশ থেকে ১২০ টাকা দরে। এ ছাড়া পুরো গারো পাহাড়ে চলছে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরির ধুম। পাহাড়ের বিভিন্ন স্থানে গর্ত করে কাঠ পুড়িয়ে অবাধে তৈরি হচ্ছে কয়লা। এতে পুরো গারো পাহাড় ক্ষতবিক্ষত হওয়ার পাশাপাশি ভূমি ধসের সৃষ্টি হয়েছে।

উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম বাদশা ও মালিঝিকান্দা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম তোতা বলেন, গারো পাহাড়ের বৃক্ষ লুটপাট নিয়ে আইন-শৃঙ্খলার কমিটির সভায় বিভিন্ন সময় আলোচনাও হয়েছে। কিন্তু এর কোনো প্রতিকার হয়নি।

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য রাংটিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুনের সাথে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩০
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৭
মাগরিব৬:০২
এশা৭:১৫
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৭