সারাদেশ | The Daily Ittefaq

তুরাগতীর থেকে মাটি ও বালু উত্তোলনের অভিযোগ

তুরাগতীর থেকে মাটি ও বালু উত্তোলনের অভিযোগ
কালিয়াকৈর (গাজীপুর) সংবাদদাতা১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং ০১:৩৬ মিঃ
তুরাগতীর থেকে মাটি ও বালু উত্তোলনের অভিযোগ

কালিয়াকৈরে ইজারা ছাড়াই তুরাগ নদীর তীর ও চর থেকে বেআইনিভাবে বালু ও মাটি উত্তোলন করে নির্মাণাধীন বিভিন্ন শিল্প কারখানা ও ইটভাটায় নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে রাজস্ব বঞ্চিত হচ্ছে সরকার এবং ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ফসলি জমি ও চরে বসবাসরত অসহায় লোকজন।

সরজমিনে জানা যায়, ক্ষমতাসীন দলের নাম ভাঙিয়ে এক শ্রেণির অসত্ ব্যবসায়ী উপজেলার সৈয়দপুর এলাকার তুরাগ নদীর তীর ও চর থেকে লক্ষ লক্ষ ঘনফুট বালু মাটি কেটে নিয়ে স্থানীয় ইটভাটা ও কারখানায় নেওয়া হচ্ছে।

উপজেলার সৈয়দপুর এলাকার নদীর চরে বসবাসরত ভূমিহীন মকবুল হোসেন, প্রিয়া আক্তার, গনী মিয়া ও কদবানু জানান—সৈয়দপুর গ্রামের এ প্রভাবশালীর নেতৃত্বে ৫/৭ জনের একদল অসত্ ব্যবসায়ী সৈয়দপুরস্থ তুরাগ নদীর তীর ও চর থেকে অবৈধভাবে লক্ষ লক্ষ ঘনফুট  বালু কেটে নিচ্ছে। প্রতিদিন ভোর ৪টা থেকে সকাল ১১টা পর্যন্ত বালু ও মাটি কেটে ১৫/২০টি ইঞ্জিন চালিত নৌকায় ভর্তি করে স্থানীয় ইটভাটা ও কলকারখানায় নেওয়া হচ্ছে। বাধা দিলে চরে বসবাসরত লোকজনকে উক্ত চর থেকে জোরপূর্বক উচ্ছেদ করাসহ নানা রকম ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান করা হয় বলে চরের লোকজন অভিযোগ করেন।

উপজেলার শ্রীফলতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান  মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘কোনো রকম ইজারা ছাড়াই তুরাগ নদী থেকে অবৈধভাবে মাটি কেটে নেওয়া হচ্ছে। ফলে নদী তীরবর্তী ফসলি জমি ও চরে বসবাসরত অসহায় লোকজন চরম হুমকির মুখে পড়েছে। রাজস্ববঞ্চিত হচ্ছে সরকার। অবৈধভাবে বালু ও মাটি উত্তোলন বন্ধসহ দায়ীদের শাস্তি দিতে হবে।’

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহ মো. শামসুজ্জোহা বলেন, ‘তুরাগ নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন এবং মাটি কাটা বন্ধে উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং
ফজর৫:০৮
যোহর১২:১২
আসর৪:২২
মাগরিব৬:০৩
এশা৭:১৫
সূর্যোদয় - ৬:২৪সূর্যাস্ত - ০৫:৫৮