সারাদেশ | The Daily Ittefaq

জামাই-শ্বশুরকে গোলপোস্টে বেঁধে মধ্যযুগীয় নির্যাতন

জামাই-শ্বশুরকে গোলপোস্টে বেঁধে মধ্যযুগীয় নির্যাতন
ডুমুরিয়া (খুলনা) সংবাদদাতা০৯ মে, ২০১৮ ইং ১৬:৪৭ মিঃ
জামাই-শ্বশুরকে গোলপোস্টে বেঁধে মধ্যযুগীয় নির্যাতন
খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার পল্লীতে মধ্যযুগীয় কায়দায় জামাই-শ্বশুরকে গোলপোস্টে বেঁধে নির্যাতনের খবর পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে শোভনা ইউনিয়নের গাবতলা বাজার সংলগ্ন ফুটবল মাঠে এ ঘটনা ঘটে।
 
ভুক্তভোগীরা হলেন- শ্বশুর শিবপদ দাস ও জামাই দীপঙ্কর দাস। এই ঘটনায় শিবপদ দাস বাদী হয়ে আব্দুল মান্নান, এনামুল হক, আসাদুজ্জামান, আব্দুস সাত্তার নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও চার-পাঁচজনের নামে একটি মামলা করেছেন। আব্দুল মান্নান নামে একজনকে গ্রেফতার করে আজ বুধবার আদালতে সোপর্দ করেছে বলে পুলিশ জানায়।
 
ডুমুরিয়া থানার ওসি (তদন্ত) তারক বিশ্বাস জানান, উপজেলার গাবতলা এলাকার শিবপদ দাসের মেয়ে পার্বতী দাসের সাথে খুলনা জেলার বটিয়াঘাটা থানার শৈলমারী গ্রামের বৈদ্যনাথ দাসের ছেলে দীপঙ্কর দাসের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী-স্ত্রী কৈয়া বাজার নামক স্থানে বসবাস করতেন। এমতাবস্থায় স্বামী দীপঙ্কর জনৈক সনিয়া খাতুন নামের এক মেয়ের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। সম্প্রতি সোনিয়াকে নিয়ে স্বামী দীপঙ্কর পালিয়ে যায়। এরপর দীপঙ্করের স্ত্রী পার্বতী দাস বাদী হয়ে গত ২৩ এপ্রিল খুলনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বামীকে বাদ রেখে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। অপহরণ মামলার আসামিরা হলেন- সোনিয়া খাতুন (২৩) ও তার মা রেবেকা বেগম (৪৫), গাবতলা এলাকার এলিন খান (২৩), এনামুল শেখ (২৪) এবং আনন্দ বাগাতী (২২)।
 
তারক বিশ্বাস আরও জানান, মামলাটি থানা পুলিশ কর্তৃক তদন্তাধীন রয়েছে। এ দিকে অপহরণ মামলার আসামিরা গতকাল দুপুরে দীপঙ্করকে যশোর জেলার মনিরামপুর থানার খেদাপাড়া এলাকার রফিকুল ইসলামের বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে আসে। এরপর গাবতলা বাজারে শালিসি বৈঠক বসায়। এ খবর পেয়ে দীপঙ্করের শ্বশুর শিবপদ দাস গাবতলা বাজারে ছুটে আসে। এ সময় আসামি সহ এলাকার লোকজন শ্বশুর-জামাইকে বাজার সংলগ্ন ফুটবল খেলার মাঠে গোলপোস্টে দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলে। পর্যায়ক্রমে শ্বশুর-জামাইকে পেটাতে শুরু করে।
 
ডুমুরিয়া থানার ওসি হাবিল হোসেন জানান, এ খবর জানতে পেরে ঘটনাস্থল থেকে শ্বশুর-জামাইকে উদ্ধার করা হয় এবং ঘটনার সাথে জড়িত আব্দুল মান্নান শেখ (৫০) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। আজ আসামি আব্দুল মান্নান ও অপহরণ মামলার ভিকটিম দীপঙ্কর দাসকে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী গ্রহণের জন্য আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
 
ইত্তেফাক/এসএস
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫১
আসর৪:১২
মাগরিব৫:৫৬
এশা৭:০৯
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫১