ঢাকা বুধবার, ২৭ মার্চ ২০১৯, ১৩ চৈত্র ১৪২৫
২২ °সে

একই মাদ্রাসার শিক্ষকের প্রাইভেটকারের ধাক্কায় প্রিন্সিপাল নিহত

একই মাদ্রাসার শিক্ষকের প্রাইভেটকারের ধাক্কায় প্রিন্সিপাল নিহত
নিহত মাওলানা শায়খুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

সিলেটের ওসমানীনগরে একই মাদ্রাসার শিক্ষকের প্রাইভেটকার ধাক্কায় প্রিন্সিপাল নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের উপজেলার বুরুঙ্গা সড়কের মুখ নামক এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। নিহত প্রিন্সিপালের পরিবারের দাবি, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একই মাদ্রাসার বাংলা বিভাগের শিক্ষক লুৎফুর রহমান তার প্রাইভেট কার দিয়ে চাপা দিয়ে পরিকল্পিতভাবে প্রিন্সিপাল মাওলানা শায়খুল ইসলামকে হত্যা করেছেন।

নিহত মাওলানা শায়খুল ইসলাম (৫০)। তিনি উপজেলার শেখ ফজিলাতুন্নেসা ফাজিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার অনন্তপুর গ্রামের মৃত উস্তার আলীর ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে মাওলানা শায়েখুল ইসলাম মোটরসাইকেলযোগে তার কর্মস্থল বুরুঙ্গা শেখ ফজিলাতুন্নেসা ফাজিল মাদ্রাসার যাচ্ছিলেন। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বুরুঙ্গা সড়কের মুখ নামক স্থান থেকে বুরুঙ্গা রাস্তায় প্রবেশের সময় পিছন দিক থেকে একই মাদ্রাসার বাংলা বিভাগের শিক্ষক লুৎফুর রহমান তার প্রাইভেটকারের সঙ্গে মোটরসাইকেলে ধাক্কা লাগে। এ সময় ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেলের আরোহী মাওলানা শায়খুল ইসলাম নিহত হন। খবর পেয়ে ওসমানীনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করে। এ সময় প্রাইভেটকারটিকে আটক করলেও চালক লুৎফুর রহমান পালিয়ে যান।

আরো পড়ুন: ভালোবাসা দিবসে চাপা পড়ল ছাত্র আন্দোলনে হত্যার সেই ঘটনা

শেরপুর হাইওয়ে থানার এসআই কামরুল ইসলাম জানান, ‘সড়ক দুর্ঘটনায় প্রিন্সিপাল নিহত হওয়ার খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পরিকল্পিতভাবে হত্যার অভিযোগ করেছেন মাদ্রাসা সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তি বর্গসহ নিহতের স্বজনরা। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

এ বিষয়ে ওসমানীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম আল মামুন বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। প্রাইভেটকারটি আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তবে পূর্ব শক্রুতার জের ধরে একই মাদ্রাসার শিক্ষক ইচ্ছাকৃতভাবে প্রাইভেটকার চাপা দিয়ে প্রিন্সিপাল মাওলানা শায়খুল ইসলাম হত্যা করেছেন বলে মৌখিক অভিযোগ পাওয়া গেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে এ বিষয়ে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

ইত্তেফাক/বিএএফ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৭ মার্চ, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন