ঢাকা সোমবার, ১৮ মার্চ ২০১৯, ৪ চৈত্র ১৪২৫
২৪ °সে

‘১৮ ফেব্রুয়ারিকে জাতীয় শিক্ষক দিবস হিসেবে ঘোষণা করা উচিত’

‘১৮ ফেব্রুয়ারিকে জাতীয় শিক্ষক দিবস হিসেবে ঘোষণা করা উচিত’
শহীদ ড. শামসুজ্জোহা স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পন করছেন ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল।

১৮ ফেব্রুয়ারিকে জাতীয় শিক্ষক দিবস হিসেবে ঘোষণা করা উচিত বলে মন্তব্য করেন শিক্ষক ও গবেষক অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ শামসুজ্জোহা স্মরণ কমিটির আয়োজনে অস্থায়ীভাবে তৈরি শহীদ ড. শামসুজ্জোহা স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পকালে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় তিনি অরো বলেন, ‘দিবসটিকে জাতীয় শিক্ষক দিবস হিসেবে দাবি জানালে যে এটি শিক্ষক দিবস হিসেবে ঘোষণা হয়ে যাবে এমন না। আমরা এটিকে দিবস হিসেবে পাবো কি না জানি না। তবে এর জন্য আমাদের চেষ্টা করতে হবে।’

সোমবার সকাল ১০টায় র‌্যালিটি কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে থেকে বের হয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে সমাবেশে মিলিত হয়। এ সময় শহীদ বুদ্ধিজীবী ড. শামসুজ্জোহা স্মরণে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে অস্থায়ীভাবে তৈরি শহীদ ড. শামসুজ্জোহা স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পন শেষে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

শহীদ শামসুজ্জোহা স্মরণ কমিটির আহ্বায়ক মো মইনুদ্দিন মিয়ার সভাপতিত্বে সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আইকিউএসি’র পরিচালক অধ্যাপক ড. আব্দুল আওয়াল বিশ্বাস, ইংরেজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. হিমাদ্রী শেখর রায়, বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সরকার সোহেল রানা, শাখা সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের আহ্বায়ক প্রসেনজিৎ রুদ্র, সাধারণ সম্পাদক নাজিরুল আজম বিশ্বাস, জাতীয় ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক রুপেল চাকমা প্রমুখ। এ সময় বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুনঃ তদন্তসাপেক্ষে দোষিদের শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে: বিজিবি মহাপরিচালক

উল্লেখ্য, ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষিতে ১৯৬৯ সালের ১৮ই ফেব্রুয়ারি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ড. শামসুজ্জোহা তৎকালীন পুলিশের হাতে নির্মমভাবে শহীদ হন।

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৮ মার্চ, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন