চাঁদা দাবি: যশোর জেলা ছাত্রলীগ সম্পাদকের বিরুদ্ধে শ্রমিক হত্যার অভিযোগ

প্রকাশ : ১৪ মার্চ ২০১৯, ২০:৫২ | অনলাইন সংস্করণ

  যশোর অফিস

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছালছাবিল ইসলাম জিসান (বামে) ও হত্যার শিকার রাজু চৌধুরী। ছবিঃ ইত্তেফাক।

যশোরে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে এক ওয়েল্ডিং মিস্ত্রিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। হত্যার শিকার ওয়েল্ডিং মিস্ত্রির নাম সাজু চৌধুরী (২৫)। চাঁদার দাবিতে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানা গেছে। এ হত্যাকাণ্ডে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছালছাবিল ইসলাম জিসান ও তার সহযোগিরা জড়িত বলে পরিবার ও পুলিশের দাবি। 

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার রাত ১১টার দিকে শহরের বিমান অফিস মোড়ে সাজু চৌধুরীকে পেটানোর ঘটনা ঘটে। এ সময় তার মাথায় মারাত্মক জখম করে আঘাতকারীরা। বৃহস্পতিবার বিকেলে যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত সাজু চৌধুরী শহরের পুলিশ লাইন টালিখোলা এলাকার স্বপন চৌধুরীর ছেলে।

কোতয়ালি থানার ওসি অপূর্ব হাসান জানান, ‘বুধবার রাতে শহরের বিমান অফিসের সামনে সাজু চৌধুরীর মাথায় আঘাত করে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জিসান। জিসানকে আটকের জন্য পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে।’

সাজুর বড়ভাই রাজু চৌধুরী জানান, ‘বুধবার রাতে সাজু ওষুধ আনার জন্য চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ডে (বিমান অফিস মোড়) যায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা তার ওপর হামলা করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।’

নিহতের বাবা স্বপন চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, ‘পুলিশ লাইন টালিখোলায় ভাই ভাই নামে তার একটি ওয়েল্ডিং কারখানা আছে। তার দুই ছেলে ওই কারখানাটি চালায়। যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছালছাবিল আহমেদ জিসান তার কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। দাবিকৃত চাঁদা না দেওয়ায় বুধবার রাতে জিসানের নির্দেশে পাভেল, রাব্বি, জনিসহ ৮-১০ জন ক্যাডার সাজুর ওপর হামলা করে। পরে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়।’

আরও পড়ুনঃ নির্যাতনের শিকার তানিয়া তিন সন্তান নিয়ে বিচারের আশায়

অভিযুক্ত জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছালছাবিল আহমেদ জিসানের ০১৭১৬-২৭৮১৭৩ মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

ইত্তেফাক/নূহু