বিশ্ব সংবাদ | The Daily Ittefaq

গরিব মুখ্যমন্ত্রীর তালিকায় মমতা দ্বিতীয়

গরিব মুখ্যমন্ত্রীর তালিকায় মমতা দ্বিতীয়
অনলাইন ডেস্ক১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং ১৬:১৮ মিঃ
গরিব মুখ্যমন্ত্রীর তালিকায় মমতা দ্বিতীয়
সাদামাটা জীবনযাপনের জন্যই তিনি পরিচিত। মমতা ব্যানার্জি সম্পর্কে সেই একই তথ্য ফের উঠে এল ‘‌অ্যাসোসিয়েশন অফ ডেমোক্রেটিক রিফর্ম’‌–এ। দেশের ২৯ রাজ্য ও ২টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্যমন্ত্রীদের সম্পদের তালিকা প্রকাশ করেছে এই সংস্থা। সেই তালিকা অনুযায়ী দেশের ধনীতম মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু। দরিদ্রতম ত্রিপুরার মানিক সরকার। তার সম্পত্তির পরিমাণ ২৬ লাখ টাকা। দরিদ্র মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মানিকের পরেই রয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম।
 
মমতার সম্পত্তির পরিমাণ ৩০ লাখ টাকা। তৃতীয় স্থানে রয়েছেন জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহেবুবা মুফতি। তার সম্পদ ৫৫ লাখ টাকার। ভোটে লড়ার আগে নিজেদের সম্পত্তির পরিমাণ জানিয়ে হলফনামা পেশ করতে হয়। সেই পরিমাণের বিচারেই বানানো হয়েছে এই তালিকা।
 
ধনীতম চন্দ্রবাবু নাইডুর সম্পত্তির পরিমাণ ১৭৭ কোটি টাকা। এর পরে ধনী অরুণাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী প্রেমা খান্ডু। তার সম্পদের পরিমাণ ১২৯ কোটি টাকা। ৪৮ কোটি টাকার সম্পত্তি নিয়ে তৃতীয় স্থানে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিং।
 
সব মিলে দেখা যাচ্ছে, দেশের ৩১ জন মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে ২৫ জন কোটিপতি। মুখ্যমন্ত্রীদের গড় সম্পদের পরিমাণ ১৬ কোটি টাকা। দেশের ৫৫ শতাংশ মুখ্যমন্ত্রীদের সম্পদ ১ থেকে ১০ কোটির মধ্যে। ১৯ শতাংশ মুখ্যমন্ত্রীদের সম্পদের পরিমাণ ১ কোটির কম।
 
সম্পত্তির পাশাপাশি চোখ রাখা হয়েছে ফৌজদারি মামলা ও শিক্ষাগত যোগ্যতার দিকেও। ফৌজদারি মামলায় শীর্ষে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবীশ। তার বিরুদ্ধে ২২টি মামলা রয়েছে। দুই ‌নম্বরে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। তার বিরুদ্ধে ১১টি ফৌজদারি মামলা রয়েছে। তিন নম্বরে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তার বিরুদ্ধে রয়েছে ১০টি মামলা। ২০ জন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কোনো ফৌজদারি মামলা নেই। শিক্ষাগত ‌যোগ্যতায় সবচেয়ে এগিয়ে সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী পবন চামলিং। ডক্টরেট ডিগ্রি রয়েছে তার। এছাড়া ৩৯ শতাংশ মুখ্যমন্ত্রী স্নাতক।
 
ইত্তেফাক/ইউবি

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৪ মে, ২০১৮ ইং
ফজর৩:৪৭
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩৫
মাগরিব৬:৪১
এশা৮:০৩
সূর্যোদয় - ৫:১২সূর্যাস্ত - ০৬:৩৬