বিশ্ব সংবাদ | The Daily Ittefaq

বিশ্ব অর্থনীতি বদলে দিতে পারে জাপানের এক দ্বীপের মাটি

বিশ্ব অর্থনীতি বদলে দিতে পারে জাপানের এক দ্বীপের মাটি
অনলাইন ডেস্ক১৮ এপ্রিল, ২০১৮ ইং ০৯:৫৬ মিঃ
বিশ্ব অর্থনীতি বদলে দিতে পারে জাপানের এক দ্বীপের মাটি
 
জাপান একটি যৌগিক আগ্নেয়গিরির দ্বীপমালা। ৬৮৫২টি দ্বীপ নিয়ে গঠিত এই দ্বীপমালা। তবে জাপানের বৃহত্তম চারটি দ্বীপ হোনশু, হোক্কাইদো, ক্যুশু এবং শিকোকু দ্বীপেই রয়েছে জাপানের মোট ভূখণ্ডের ৯৭ ভাগ। অর্থাৎ অন্য দ্বীপগুলোর আয়তন খুবই কম। কিন্তু এবার জাপানের একটি ছোট্ট দ্বীপ নতুন করে ভাবতে বাধ্য করছে বিশ্ববাসীকে।
 
কারণ এই দ্বীপের মাটিতে পাওয়া গেছে দুর্লভ ও মূল্যবান খনিজ পদার্থ। এই খনিজ পদার্থের মধ্যে রয়েছে এমন কিছু দুর্লভ খনিজ উপাদান যা ব্যবহৃত হয় স্মার্টফোন, মিসাইল সিস্টেম, রাডারের যন্ত্রপাতি এবং উন্নত প্রযুক্তির যানবাহনে।
 
এসব মূল্যবান খনিজের একটি উত্তরিয়াম। ক্যামেরা লেন্স, সুপারকন্ডাকটরস এবং স্মার্টফোন তৈরিতে ব্যবহৃত হয় এই উত্তরিয়াম। গবেষকরা ধারণা করছেন, ছোট্ট এই দ্বীপে মোট ১৬ মিলিয়ন টন মাটি পাওয়া যেতে পারে। যার প্রতিটা কনাই কিনা  মহামূল্যবান। এ কারণে এই দ্বীপের মাটির অসাধারণ সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের মতে, এই মাটি-ই হতে পারে অন্যতম ‘গেম চেঞ্জার’।
 
জাপানের গবেষকদের প্রকাশ করা এই প্রবন্ধে বলা হয়েছে, জাপান উপকূল থেকে ১২০০ কিলোমিটার দূরে এই দ্বীপের সন্ধান পাওয়া গেছে। এই খনিজের মধ্যে রয়েছে উত্তরিয়াম, ইউরোপিয়াম, টারবিয়াম এবং ডিসপ্রোসিয়াম।
 
বিশ্বকে ‘সেমি-ইনফিনিট’ সরবরাহের ক্ষেত্রে এটি হতে পারে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উত্স। যদিও মার্কিন জিওলোজিক্যাল সার্ভের মতে, শোষণযোগ্য আকরিক আমানতগুলো অনেক বেশি কেন্দ্রীভূত থাকার কারণে এটি ঠিক কতটা ব্যবহার পর্যায়ে নিয়ে আসা যাবে তা নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায়। কিন্তু এই ধরনের দুর্লভ খনিজ উপাদানের উত্স পৃথিবীতে খুব কমই রয়েছে।
 
২০১৫ সালের তথ্য অনুযায়ী, প্রযুক্তির জন্য অতি প্রয়োজনীয় দুর্লভ খনিজ উপাদানের শতকরা ৯৫ ভাগই নিয়ন্ত্রণ করে চীন। জাপানের এই খনিজ উত্স চীনের সাথে প্রতিযোগিতার ক্ষেত্রে জাপানকে দারুণভাবে এগিয়ে দেবে।
 
সারা বিশ্বের দুর্লভ খনিজ উপাদানের বাজারকেও বদলে দিতে পারে জাপানের এই দ্বীপের মাটি। স্মার্টফোন, মিসাইল সিস্টেম, রাডারের যন্ত্রপাতি এবং উন্নত প্রযুক্তির এলইডির বাজারে জাপানের এই খনিজ উপাদান বিশ্ব অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।-সিএনএন
 
ইত্তেফাক/মোস্তাফিজ
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩৪
যোহর১১:৫১
আসর৪:১১
মাগরিব৫:৫৪
এশা৭:০৭
সূর্যোদয় - ৫:৪৮সূর্যাস্ত - ০৫:৪৯