বিশ্বকাপ ফুটবল | The Daily Ittefaq

আর্জেন্টিনার বিদায় মানে ‘ঘোষণা দিয়ে মৃত্যুর ধারা বিবরণী রচনা’

আর্জেন্টিনার বিদায় মানে ‘ঘোষণা দিয়ে মৃত্যুর ধারা বিবরণী রচনা’
অনলাইন ডেস্ক০১ জুলাই, ২০১৮ ইং ১৯:৫৪ মিঃ
আর্জেন্টিনার বিদায় মানে ‘ঘোষণা দিয়ে মৃত্যুর ধারা বিবরণী রচনা’
ফ্রান্সের কাছে হেরে বিশ্বকাপ থেকে আর্জেন্টিনার বিদায়ের ঘটনাকে ‘ঘোষণা দিয়ে মৃত্যু ধারা বিবরণী রচনা’ -এর সঙ্গে তুলনা করেছেন কিংবদন্তী ফুটবল তারকা দিয়েগো ম্যারাডোনা।
 
শুরুতে আঁতোয়ান গ্রিজম্যানের পেনাল্টির গোলটি এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া পরিশোধ করে দেয়ার পর গ্যাব্রিয়েল মারসেডোর গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। কিন্তু এরপর বেঞ্জামিন পেভার্ডের গোলে আর্জেন্টিনার সঙ্গে সমতায় ফেরার পর কিলিয়ান এমবাপের জোড়া গোলে জয় নিশ্চিত হয় ফ্রান্সের। শেষ মুহুর্তে বদলী হিসেবে মাঠে নামা সার্জিও এগুয়েরোর গোলের পরও ৪-৩ গোলে পরাজিত হয় আর্জেন্টিনা।
 
ম্যাচটি মাঠে বসে উপভোগ করেছেন ম্যারাডোনা। যিনি ১৯৮৬ সালে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপের শিরোপা পাইয়ে দিয়েছেন এবং তাকেই দেশটির সর্বকালের সেরা ফুটবলার হিসেবে বিবেচনা করা হয়। শনিবারের ওই ম্যাচে কোন বিষ্ময় খুঁজে পাননি ম্যরাডোনা। 
 
তিনি বলেন,‘ সিনেমা না দেখে এই খেলা দেখতে মাঠে আসার কারণ হচ্ছে আমরা ‘ঘোষণা দিয়ে রচিত মৃত্যুর ধারা বিবরণী’ দেখতে চেয়েছি। ফ্রান্স মেসি এবং আর্জেন্টিনার মিডফিল্ডকে হারিয়েছে। আমরা যেমনটি ধারনা করেছিলাম, তেমনটিই হয়েছে ম্যাচটিতে।
 
এর ফলে আরো একটি বিশ্বকাপ চলে গেল, আর আমরা কিছুই অর্জন করতে পারলাম না। আমরা এখনো একটি ধারাবাহিক দল গঠন করতে পারলাম না।’
 
কোচ হোর্হে সাম্পাওলি মেসিকে ব্যবহার করেছেন ‘ফলস নাইন’ হিসেবে। ফ্রান্সের মত শক্তিশালী দলের বিপক্ষে এগুয়েরো, গঞ্জালো হিগুইন ও পাওলো দিবালাকে বেঞ্চে বসিয়ে রেখে মুল একাদশে অন্তর্ভুক্ত করেছেন ক্রিস্টিয়ান পাভোনকে। কোচের ওই কৌশল খুশি করতে পারেনি ম্যারাডোনাকে। তিনি বলেন,‘ফর্মেশনে দেখা গেছে আক্রমনের গুরুদায়িত্ব দেয়া হয়েছিল পাভোন, মেসি ও ডি মারিয়াকে। এটি ঠিক তারা ম্যাচ তৈরী করে দিতে পারেন। কিন্তু তারা তো স্ট্রাইকার নন।’
 
ইত্তেফাক/রেজা
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:২৯
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৭
মাগরিব৬:০৩
এশা৭:১৬
সূর্যোদয় - ৫:৪৫সূর্যাস্ত - ০৫:৫৮