বিশ্বকাপ ফুটবল | The Daily Ittefaq

বেলজিয়ান আক্রমণ ঠেকাতে প্রস্তুত ফ্রান্স

বেলজিয়ান আক্রমণ ঠেকাতে প্রস্তুত ফ্রান্স
স্পোর্টস ডেস্ক০৯ জুলাই, ২০১৮ ইং ১০:৪৭ মিঃ
বেলজিয়ান আক্রমণ ঠেকাতে প্রস্তুত ফ্রান্স
আগামী মঙ্গলবার সেন্ট পিটার্সবার্গে প্রথম ফাইনালে বেলজিয়ামের মুখোমুখি হবে ফ্রান্স। পুরো টুর্নামেটজুড়েই প্রতিপক্ষ রক্ষণে ত্রাস ছড়িয়েছে বেলজিয়ান আক্রমণভাগ। হ্যাজার্ড-লুকাকু-ডি ব্রুইনদের নিয়ে গড়া আক্রমণ তর্কযোগ্যভাবে টুর্নামেন্টের সেরা আক্রমণভাগও। তবে ফরাসি ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারান মনে করেন বেলজিয়ামকে আটকে রাখার সামর্থ্য আছে ফরাসী রক্ষণভাগের।
 
কোয়ার্টার ফাইনালে উরুগুয়ের বিপক্ষে ২-০ গোলের জয়ে দলের হয়ে প্রথম গোলটি করেন রাফায়েল ভারান। অ্যান্টোনিও গ্রিজম্যানের নেয়া ফ্রি কিকে মাথা ছুঁইয়ে দুর্দান্ত এক গোল করেন এই রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার। ভারান জানান- যেভাবে তাদের তুলনামূলক তরুণ দলটি ধীরে ধীরে পরিপক্বতা অর্জন করেছে তা বেশ সন্তোষজনক।
 
কোয়ার্টার ফাইনালের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাফায়েল ভারান বলেন, ‘ফলাফল নির্ধারক হয়ে যেতে পেরে বেশ আনন্দ বোধ করছি, এ এক দারুণ অনুভূতি। আমরা গত ম্যাচে শারীরিক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছিলাম। আমরা তা সামলে নিতে সফল হয়েছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘অভিজ্ঞতা এমন ম্যাচে খুব কাজে দেয় এবং এটি ছোটখাট ভুলত্রুটি এড়াতে খুব সাহায্য করে। আমাদের দলটি তুলনামূলকভাবে তরুণ, কিন্তু আমরা পরিপক্বতা দেখিয়েছি এবং আমরা ধীরে ধীরে আরও পরিপক্ব হচ্ছি।’
 
জমাট রক্ষণ এবং ভিন্ন ভিন্ন দলের বিপক্ষে মানিয়ে খেলাই ফরাসিদের সাফল্যের রহস্য বলে মনে করেন ভারান। তিনি বলেন, ‘আমরা রক্ষণাত্মকভাবে বেশ নিখুঁত এবং প্রতিপক্ষ বিচার করে মানিয়ে খেলতে পারি। প্রয়োজনবোধে আমরা খেলার ধরনে পরিবর্তন আনতে পারি যা অনেক বড় এক শক্তি।’
 
কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলের বিপক্ষে ২-১ গোলে জেতা ম্যাচটিতে প্রতি আক্রমণের পসরা সাজিয়ে বসেছিল বেলজিয়াম। তবে ভারানে মনে করেন বেলজিয়াম দলের ফরোয়ার্ড রোমেলু লুকাকু এবং এডেন হ্যাজার্ডকেই চোখে চোখে রাখা উচিত ফ্রান্সের। তিনি বলেন, ‘এটা বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল। এখানে কেউই ফেভারিট নয়। সামর্থ্যের সেরাটাই ঢেলে দিতে হবে আমাদের। প্রতিটি ম্যাচই সামর্থ্যের শতভাগই চায়। এখন দেখা যাক আমরা কতদূর এগোতে পারি।’
 
প্রতিপক্ষ আক্রমণভাগের খেলোয়াড় লুকাকু এবং হ্যাজার্ডের ব্যাপারে ভারান বলেন, ‘বেলজিয়াম দলটি তরুণ কিন্তু তারা ধীরে ধীরে পরিণত হয়ে উঠছে। আমরা জানি বেশ কঠিন ম্যাচ হতে যাচ্ছে এটি। লুকাকু তার শারীরিক শক্তি দিয়ে যে কোনো প্রতিপক্ষ রক্ষণকে বিপদে ফেলে দিতে পারে। আমরা তাকে একা ছেড়ে দিতে পারব না কারণ সে একজন প্রতিভাবান খেলোয়াড়। আর ইডেনের কথা বললে, আমি আগে তার বিপক্ষে খেলেছি যখন সে লিলে খেলতো। সে দারুণ গুণসম্পন্ন খেলোয়াড় এবং তার ড্রিবল করার ক্ষমতা দারুণ। তাকেও আমরা ফাঁকা জায়গা উপহার দিতে পারি না আর তা করতে হলে দলগত প্রয়াসের প্রয়োজন।’
 
ইত্তেফাক/কেকে
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩৩
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৩
মাগরিব৫:৫৭
এশা৭:১০
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫২