বিশ্বকাপ ফুটবল | The Daily Ittefaq

মহারণে মুখোমুখি কেইন-মর্ডিচরা

মহারণে মুখোমুখি কেইন-মর্ডিচরা
আজ দ্বিতীয় সেমিফাইনাল
স্পোর্টস ডেস্ক১১ জুলাই, ২০১৮ ইং ০৪:২০ মিঃ
মহারণে মুখোমুখি কেইন-মর্ডিচরা
আজ রাতে মস্কোর লুজনিকি স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড এবং ক্রোয়েশিয়া। ২০ বছরের অপেক্ষা শেষে বিশ্বকাপের আবার সেমিফাইনাল মঞ্চে পা রেখেছে ক্রোয়েশিয়া। ইংল্যান্ডের জন্যেও অপেক্ষাটা কিছু কম নয়। শেষবার ইংল্যান্ড সেমিফাইনাল খেলেছিল বার্লিন দেয়াল ভাঙার আগের বছর। ১৯৯০ এর পরে কেটে গেছে আরো ২৮ বছর; এই সময়ে আর সেমিফাইনাল খেলেনি তারা। আজকের এই সেমিফাইনাল তাই সীমাহীন মাহাত্ম নিয়ে হাজির হয়েছে দুই দলের কাছেই।
 
ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, জার্মানির ভীড়ে হয়তো কেউ কল্পনাও করেনি এদের টপকে সেমিতে খেলতে নামবে ক্রোয়েশিয়া-ইংল্যান্ড। কিন্তু দুই দল তাদের দুর্দান্ত ক্রীড়ানৈপুণ্য দিয়েই এতদূর এসেছে। দ্বিতীয় পর্ব এবং কোয়ার্টার ফাইনালের দুটো ম্যাচেই ১২০ মিনিট শেষে টাইব্রেকার জিতে সেমিতে এসেছে ক্রোয়েশিয়া। অন্যদিকে দ্বিতীয় পর্বে বিশ্বকাপে নিজেদের টাইব্রেকার দুঃস্বপ্নকে জয় করেছে ইংল্যান্ড।
 
বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড নিজেদের প্রথম পেনাল্টি শুটআউট জয় তুলে নিয়েছে কলম্বিয়ার বিপক্ষে। তবে কোয়ার্টার ফাইনালে সুইডেনের বিপক্ষে ২-০ গোলের এক সহজ জয় তুলে নিয়েছিল ইংল্যান্ড। গ্রুপ পর্বে মেসির পায়ে লাগাম পড়াতে সক্ষম হয়েছিল জ্লাতকো দালিচের ক্রোয়েশিয়া। তারা তাই বিশ্বাস করে সেমিফাইনালে হ্যারি কেনকেও আটকে রাখতে পারবে। 
 
নিজের শিষ্যদের উপরে বিশ্বাস আছে দালিচের। তবে এক সপ্তাহ সময়ের ব্যবধানে আগের দুই ম্যাচে মোট ২৪০ মিনিট খেলায় খেলোয়াড়দের  শারীরিক শক্তি দুশ্চিন্তায় ফেলে দিতে পারে তাকে। বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়ার করা ৯ গোল এসেছে ৮ জন ভিন্ন খেলোয়াড়ের পা-মাথা থেকে। এটি নিঃসন্দেহে ক্রোয়েশিয়া কোচকে খুশির খবর হতে পারতো কিন্তু এতে ফরোয়ার্ডদের অবদান তার কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলবে বৈকি!
 
অন্যদিকে ইংল্যান্ড দলে ইনজুরির শঙ্কা নেই তেমন এবং শুরুর একাদশে জায়গা পাওয়া সবাইই কোচ গ্যারেথ সাউথগেটকে সন্তুষ্ট করতে সক্ষম হয়েছেন। ফলে সেমিফাইনালের বড় মঞ্চে বড় কোনো চমক ছাড়াই দলকে মাঠে নামাতে যাচ্ছেন ইংল্যান্ড কোচ এটা একরকম বলেই দেয়া যায়। এবারের ইংল্যান্ড দল দেখিয়েছে তারা সময়ের চাহিদা মেনে ভিন্ন ভিন্ন ঘরানার ফুটবল খেলতে পারে। 
 
এ ম্যাচে দলটির লক্ষ্য থাকবে মর্ডিচ, রাকিটিচ ক্রামারিচদের নিয়ে গড়া তর্কসাপেক্ষে বিশ্বকাপের সেরা মাঝমাঠের কাছে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ তুলে না দেওয়া। তবে বলার অপেক্ষা রাখে না, ম্যাচটি ইংল্যান্ডের জন্য আগের ম্যাচগুলো থেকে বেশ কঠিন এক ম্যাচই হতে যাচ্ছে। তবে সাউথগেটের ইংল্যান্ড যে কোনো পরিস্থিতিকে মোকাবেলা করতে সক্ষম, এ বিশ্বাসই ইংলিশদের এগিয়ে রাখবে এ ম্যাচে।
 
ইত্তেফাক/কেআই
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫১
আসর৪:১২
মাগরিব৫:৫৬
এশা৭:০৯
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫১