প্রথম ভোটার হচ্ছেন সিঙ্গাপুর প্রবাসীরা

প্রকাশ : ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

  ইত্তেফাক রিপোর্ট

বিদেশে কর্মরত বাংলাদেশী শ্রমিক। সংগৃহীত ছবি

বিদেশে গিয়ে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ভোটার করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগামী এপ্রিলে পরীক্ষামূলকভাবে (পাইলটিং) সিঙ্গাপুরে যেসব বাংলাদেশি থাকেন তাদেরকে ভোটার করা হবে। সিঙ্গাপুরের কয়েকটি স্থানে ভোটার নিবন্ধন ক্যাম্প স্থাপন করে ইসির বিশেষজ্ঞরা প্রবাসীদের ভোটার করার কার্যক্রম শুরু করবেন। সেখানে সফলতা পাওয়া গেলে পরবর্তীতে অন্যান্য দেশে গিয়ে বাংলাদেশিদের ভোটার করা হবে।

এ বিষয়ে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, প্রবাসীদের ভোটার করার পাইলটিং হবে সিঙ্গাপুরে। এরপর দুবাইতে প্রবাসীদের ভোটার করার কার্যক্রম শুরু হবে। প্রথমে একটি ৫৭ সদস্যের দল সিঙ্গাপুর যাবে। অংশীজনদের সঙ্গে মতবিনিময়ের ভিত্তিতে পরে কারিগরি দল পাঠানো হবে। নির্বাচন কমিশন বলছে, ভোটাধিকার প্রয়োগ করা নয়, প্রবাসীদের হাতে এনআইডি কার্ড তুলে দেওয়া তাদের প্রধান লক্ষ্য। জানা যায়, ১৯৯৮ সালে দেশের উচ্চ আদালত প্রবাসী বাংলাদেশিদের ভোটাধিকার সংবিধান স্বীকৃত বলে ঘোষণা দেয়। দীর্ঘ ২০ বছরেও সেই ঘোষণা বাস্তবায়নের মুখ দেখেনি। বিশ্বের ১৫৭টি দেশে কোটির উপরে প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন। ইসির জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের পরিকল্পনা অনুযায়ী, সারাবিশ্বের বাঙালি অধ্যুষিত ১৫৭টি রাষ্ট্রের মধ্যে জনবহুল তিনটি দেশ অর্থাৎ সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং মালয়েশিয়ায় দ্বিতীয় ধাপের ভোটার করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। প্রথমধাপে সিঙ্গাপুর, দুবাই, কাতার, বাহরাইনের প্রবাসীদের ভোটার করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

আরো পড়ুন: আমিরাতে দূতাবাসে মিডিয়া উইং চালুর দাবি

এ বিষয়ে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের (এনআইডি) মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম ইত্তেফাককে বলেন, মধ্যপ্রাচ্য, ইউরোপ এবং আমেরিকাসহ বিশ্বের অনেক দেশে বহুসংখ্যক বাংলাদেশি নাগরিক অবস্থান করছে। স্বাধীনতার এতো বছর পরও তারা দেশে আসার সুযোগ পান না। ফলে ভোটার তালিকায় তাদের নাম যেমন অন্তর্ভুক্ত হয় না, তেমনি তারা জাতীয় পরিচয়পত্র থেকে বঞ্চিত। রাষ্ট্রের পরিচয়পত্র না থাকায় নানা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন তারা।

ইত্তেফাক/মোস্তাফিজ