ঢাকা সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯, ৯ বৈশাখ ১৪২৬
৩৩ °সে

নেদারল্যান্ডে বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মবার্ষিকী পালন

নেদারল্যান্ডে বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মবার্ষিকী পালন
বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেছে নেদারল্যান্ডে দি হগেস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস। ছবি: ইত্তেফাক

নেদারল্যান্ডে দি হগেস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেছে। দিবসটি পালনে দূতাবাসের পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী তাদের পরিবার এবং সন্তানাদি নিয়ে উপস্থিত ছিলেন।

পবিত্র ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠের মাধ্যমে দিবসের অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। পরে এ দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং শাহাদাত বরণকারী পরিবারের সদস্যদের রুহের মাগফেরাত, দেশের অব্যাহত শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং সম্প্রতি ঢাকার চকবাজারে সংঘটিত মর্মান্তিক অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের জন্য বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

আলোচনা পর্বে নেদারল্যান্ডস্থ আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ও সদস্যগণ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি তাদরে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। সংক্ষিপ্ত আলোচনায় জয়নাল আবেদীন, মোস্তফা জামান এবং মাহবুবুর রহমান বঙ্গবন্ধুর অবিসংবাদিত নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে নয় মাসব্যাপী রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশে স্বাধীনতা লাভের কথা তুলে ধরেন।

নেদারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ মুহম্মদ বেলাল তার বক্তব্যে বঙ্গবন্ধুর বলিষ্ঠ এবং দূরদর্শী নেতৃত্ব এবং বাঙালী জাতির প্রতি তার অপরিসীম মমত্বের চিত্র তুলে ধরেন। রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন, সমগ্র জীবন ব্যাপী বঙ্গবন্ধু তার পর্বতসম ব্যক্তিত্ব, সাহসিকতা ও অপরিসীম ভালবাসা নিয়ে সাধারণ জনগণের কাতারে জীবন কাটিয়ে ছিলেন। তার স্বপ্ন ও পরিকল্পনা জুড়ে ছিল কেবল বাঙালী জাতির উন্নয়ন।

জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রদূত বেলাল শিশুদের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন এবং শিশুদের প্রতি বঙ্গবন্ধুর অকৃত্রিম ভালবাসার বিষয়টি তাদের অবহিত করেন। তিনি উপস্থিত শিশু কিশোরদের বঙ্গবন্ধুর জীবনী পড়বার জন্য এবং বঙ্গবন্ধুকে তাদের জীবনে আদর্শ ব্যক্তিত্ব হিসেবে অনুসরণের উপদেশ প্রদান করেন।

দিবসটি উপলক্ষে শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন এবং কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। রাষ্ট্রদূত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী সকল শিশু-কিশোরদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন এবং তাদের অংশগ্রহণের জন্য উৎসাহিত করেন। তিনি উপস্থিত শিশু-কিশোরদেরসহ বঙ্গবন্ধু স্মরণে জন্মদিনের কেক কাটেন।

আরো পড়ুন: স্বাস্থ্য ঝুঁকি নিয়েই অধিক লাভে তামাক চাষ

পরবর্তীতে একটি সংক্ষিপ্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। দূতাবাস পরিবারের এবং স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটির শিশুরা এ পরিবেশনায় অংশগ্রহণ করে।

ইত্তেফাক/অনি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ এপ্রিল, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন