ঢাকা শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬
২৫ °সে

মস্কোতে নানা আয়োজনে গণমৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬০ বছর পালন

মস্কোতে নানা আয়োজনে গণমৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬০ বছর পালন
ছবি সংগৃহীত

দিনটি ছিল রাশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের। বিশেষ করে গণমৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন-পুরানের। প্রিয় ক্যাম্পাস ৬০ বছরে পা দিয়েছে। আয়োজনে সামিল হতে বাংলাদেশসহ নানান দেশ থেকে এসেছেন অগ্রজরা। রবিবার সন্ধ্যায় হয়েছিল অন্যরকম এক মিলনমেলা। বাড়তি পাওনা হিসেবে মস্কো মাতালেন দেশি শিল্পীরা।

আনন্দময় এমন সময়কে মনে রেখে দিতেই ব্যতিক্রম এই উদ্যোগ নিয়েছেন অ্যালামনাই অ্যান্ড ফ্রেন্ডস অ্যাসোসিয়েশনের ‘কাউন্সিল চেয়ারম্যান’ আলমগীর জলিল। জমকালো অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে রাশিয়ায় অধ্যয়নরত ১০ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়। আয়োজনে সহযোগী সংগঠন ‘সাব অ্যান্ড ফ্রেন্ডস অব রাশিয়া’।

প্রাণবন্ত অনুষ্ঠানটি উপস্থাপক করেন লিজা পাকরভসকায়া ও মোস্তফা মাহমুদ (কানাডা)। উপস্থিত ছিলেন গণমৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশের প্রথম ব্যাচের ছাত্র ইঞ্জিনিয়ার নুরুল কাদের (আমেরিকা), সিদ্দিকুর রহমান দামাল (কানাডা), হাকিম সরকার (কানাডা), সৈয়দা জলি (বাংলাদেশ) ও সোভিয়েত এ্যালামনি এসোসিয়েশন (সাব)-এর সভাপতি তাসকিম এ খান। বাংলাদেশি শিল্পী আশিয়া ইসলাম দোলা এবং অপু আমানের গান শ্রোতাদের মুগ্ধ করেছে।

উৎসব সন্ধ্যায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশে নিযুক্ত রাশিয়ার সাবেক রাষ্ট্রদূত নিকোলায়েভ আলেকজান্ডার আলেক্সিভিচ, বাংলাদেশ দূতাবাসের ডিফেন্স এটাসে এসএম শাহনেওয়াজ, দূতাবাসের কাউন্সেলর ও দূতালয় প্রধান আন্দ্রিয় দ্রং, রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আবখাজিয়া এবং দক্ষিণ ওসেটিয়া বিভাগের প্রধান স্তারকোভ আন্দ্রেই আলেকজান্দ্রোভি, টেলিভিশন চ্যানেল আরটির মধ্যপ্রাচ্য বিশেষজ্ঞ আলেক্সিয়েভ্না বেলিকোভা।

বৃত্তির জন্য রাশিয়ায় অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আবেদন আহ্বান করা হয়। আবেদনকারীদের মধ্য থেকে জুরিবোর্ড ১০ জনকে বৃত্তির জন্য মনোনিত করেছেন। বৃত্তিপ্রাপ্তরা হলেন- সৌমিত্র বসাক নিলয়, এডওয়ার্ড আর্থার, রিদওয়ান বিন রহমান, রাহাতুল আমিন সাকিব, হাছান সৈয়দ মেহেদী, মোহাম্মদ আসলাম, রেজাউল করিম, অমৃতা ঢালী, জান্নাতুল তাজরীন স্নিগ্ধা ও আবদুল্লাহ আল সৌরভ।

আলমগীর জলিল বলেন, বৃত্তির জন্য মনোনীত সবাইকে শুভেচ্ছা জানাই। প্রত্যাশা করছি- বাংলাদেশি এসব শিক্ষার্থী সামনের দিনে সাফল্য ধরে রাখবে। এই বৃত্তি পড়াশোনায় শিক্ষার্থীদের সামান্য সহায়ক হলেই আমরা খুশি।

অনুষ্ঠানে আগত অতিথিরা গণমৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি উষ্ণ আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। এছাড়া রাশিয়া-বাংলাদেশের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

ইত্তেফাক/এএম

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
০৪ এপ্রিল, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন