ঢাকা সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
২৭ °সে

করোনায় বাংলাদেশের পাশে কোরিয়া প্রবাসীরা

করোনায় বাংলাদেশের পাশে কোরিয়া প্রবাসীরা
খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন কোরিয়া প্রবাসীরা। ছবি: সংগৃহীত

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে থমকে গেছে গোটা বিশ্ব। এমন পরিস্থিতিতে অসহায় হয়ে পড়েছে দেশের খেটে খাওয়া মানুষগুলো। দেশের এই বিপর্যয়ের মুখে জন্মভূমির পাশে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রবাসী বাংলাদেশীরা।

বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশ যেখানে ৮০ শতাংশ মানুষই মধ্যবিত্ত বা নিন্ম মধ্যবিত্তের নিচে বসবাস করে সেই দেশে একমাস বা তার বেশি সময় লকডাউন থাকলে খুব সহজেই অনুমেয় কেমন আছে এদেশের খেটে খাওয়া মানুষগুলো।

দেশের এমন নেতিবাচক পরিস্থিতিতে দক্ষিণ কোরিয়া প্রবাসী বাংলাদেশীরা ফেসবুকে একটি পেজ খুলে অনুদান সংগ্রহ শুরু করে, প্রবাসীরা ছোট আকারে হলেও দেশের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করে। নিজেদের দায়বদ্ধতার কথা চিন্তা করেই তাদের এই প্রয়াস। তাদের পরিকল্পনার মধ্যে ছিলো…১. হাসপাতাল বা স্বাস্থ্য সেবায় জড়িতদের পিপিই বা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ । ২. প্রান্তিক বা অসহায় মানুষদের জন্য খাদ্য সহায়তা ।

সেই চিন্তা থেকেই দেশে মেডিসিন ক্লাবের সহায়তায় নারায়ণগঞ্জ, মাদারীপুর, মুন্সীগঞ্জ, গাজীপুর, কুমিল্লা, রংপুর, ময়মনসিংহ, কিশোরগঞ্জ, দিনাজপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, রাজশাহী, বরিশাল, হবিগঞ্জ এবং এর বাইরে আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম কে ও পিপিই প্রদান করা হয় । মেডিসিন ক্লাবের সহযোগিতায় দেশের এই ১৩টি জেলায় ৭০০ পিপিই বন্টন করা হয়। দ্বিতীয় পর্যায়ে, দেশের ৮ জেলার ৮০০ পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করার পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়। যদিও পরে তা বেড়ে ৮৩৫ পরিবার হয়ে যায়।

কোরিয়া প্রবাসী যারা বাংলাদেশে আছেন তারা এই খাদ্য বিতরণে সহযোগিতা করেন। ৮টি জেলা হলো: ১. নীলফামারী ২. কুড়িগ্রাম ৩.পাবনা ৪.বরিশাল ৫.খুলনা ৬. চট্টগ্রাম ৭. লালমনিরহাট ৮.নারায়ণগঞ্জ.

কোরিয়া প্রবাসীদের নানা সংগঠন থাকলেও তার বাইরে এবার ‘প্রবাসী’ পরিচয়ের ইতিবাচক ব্র্যান্ডিং এর প্রতি জোর দিতে চেয়েছেন কোরিয়া প্রবাসীরা । অনুদান গ্রহণ আপাতত বন্ধ , পরে উদ্যোগের সাথে জড়িতরা আলোচনা করে পরবর্তী কার্যক্রম ঘোষণা করবে ।

ইত্তেফাক/এসআই

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
০১ জুন, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন