ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬
২০ °সে

মাদক নিরাময় কেন্দ্রে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

মাদক নিরাময় কেন্দ্রে যুবককে পিটিয়ে হত্যা
সাভারে আদর মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে জাহাঙ্গীর নামে এক যুবকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ করেছে পরিবার। ছবি: ইত্তেফাক

সাভারের একটি মাদক নিরাময় কেন্দ্রে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার দুপুরে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে নিহত ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে সাভার মডেল থানা পুলিশ। এর আগে মাদক নিরাময় কেন্দ্রের লোকজন হাসপাতালের জরুরি বিভাগে তাকে মৃত অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

নিহত ওই যুবকের নাম জাহাঙ্গীর মিয়া (৩২)। তিনি ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর থানার বুড়িকান্দি গ্রামের মৃত হাফিজ উদ্দিনের ছেলে। জাহাঙ্গীর পরিবারসহ সাভার পৌর এলাকার ব্যাংক কলোনি মহল্লায় বসবাস করতেন এবং বড় ভাই মানিকের সঙ্গে হোটেল ব্যবসা করতেন।

অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানটির নাম ‘আদর মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্র।’ প্রতিষ্ঠানটি সাভারের রেডিও কলোনি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় উত্তরা মার্কেটে একটি ঘর ভাড়ায় নিয়ে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, বৃহস্পতিবার জাহাঙ্গীরকে মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার সকালে মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ফোন করে জাহাঙ্গীরের সঙ্গে দেখা করার জন্য অনুমতি চাওয়া হয়। তখন সম্পূর্ণ সুস্থ আছে জানিয়ে এক মাস পর পরিবারকে দেখা করার পরামর্শ দেওয়া হয়। কিন্তু তার আধা ঘণ্টা পরই নিরাময় কেন্দ্রের লোকজন ফোন করে এনাম মেডিকেলে আসতে বলে। এসে জাহাঙ্গীরকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।

বড় ভাই মানিক অভিযোগ করে বলেন, চিকিৎসার নামে নিরাময় কেন্দ্রের লোকজনের নির্যাতনে জাহাঙ্গীরের মৃত্যু হয়েছে।

এনাম মেডিকেলের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মেরাজুর রেহান জানান, শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জুয়েল নামে এক ব্যক্তি মৃত অবস্থায় জাহাঙ্গীরকে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

আরও পড়ুন: খুনের পরও নারীর শরীরের খুনির বিভৎস্য নৃশংসতা

সাভার মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনিরুজ্জামান জানান, নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মরদেহ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে- শারীরিক নির্যাতনের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। বাকিটা ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

এদিকে কথা বলতে ওই মাদক নিরাময় কেন্দ্রে গিয়ে মালিক পক্ষের কাউকে পাওয়া যায়নি। তবে লাবিব নামে এক যুবক নিরাময় কেন্দ্রের স্টাফ পরিচয় দিয়ে বলেন, বৃহস্পতিবার মধ্য রাতের দিকে জাহাঙ্গীর নামে ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তবে এবিষয়ে আর কোনো কথা বলতে তিনি রাজি হননি।

ইত্তেফাক/এসি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন