ঢাকা সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
২৭ °সে

মিরপুর ক্লাব লিমিটেড ভার্চুয়াল হাসপাতাল

মিরপুর ক্লাব লিমিটেড ভার্চুয়াল হাসপাতাল
মিরপুর ক্লাব লিমিটেড ভার্চুয়াল হাসপাতাল

আদর্শ হাসপাতালের সকল সুযোগ সুবিধা রয়েছে ভার্চুয়াল হাসপাতালে! শুনে অবাক মনে হলেও এমনই এক হাসপাতাল রয়েছে। এই ভার্চুয়াল হাসপাতাল মূলত স্বাস্থ্য ব্যবস্থার নেটওয়ার্ক। যার নাম মিরপুর ক্লাব লিমিটেড ভার্চুয়াল হাসপাতাল।

সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ কথা জানানো হয়, এটি একটি সমন্বিত হাসপাতাল নেটওয়ার্ক হবে। এটির নাম হবে ভার্চুয়াল হাসপাতাল সিস্টেম বা ভার্চুয়াল হাসপাতাল নেটওয়ার্ক।

সেখানে আরো বলা হয়, এই হাসপাতালটি পাশাপাশি রিসার্চ বেইজ হাসপাতালে রূপান্তরিত হবে। আগামীতে আমরা সুবিধাজনক সময়ে একটি মেডিকেল ইনস্টিটিউট করবো এবং এর সাথে পড়ালেখা এবং রিসার্চ অংশ যুক্ত থাকবে। বর্তমান সময়ে রিসার্চ বেইজ এডুকেশন হাসপাতাল বলতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়কে বুঝি। কারণ এটি একটি হাসপাতাল তার পাশাপাশি এখানে রিসার্চ হয় এবং পড়ালেখা হয়।

প্রতিষ্ঠানটি জানায় আপাতত আমরা পূর্ণাঙ্গ ভার্চুয়াল হাসপাতালের রূপ দিতে চাচ্ছি। আমরা জানি যে একটা হাসপাতালে কিছু ব্যবস্থাপনা থাকে। যেমন: OPD, IPD, অপারেশন থিয়েটার, স্টোরেজ, ফার্মেসী, ইমার্জেন্সি সেন্টার, ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্য কর্মী , আইটি, আয়া, গার্ড ইত্যাদি থাকে। এইসব কিছুর সমন্বিত যোগফল হল একটি হাসপাতাল। আমাদের মিরপুর ক্লাব লি: ভার্চুয়াল হাসপাতাল এসব ব্যবস্থাপনা থাকবে।

এখন প্রশ্ন হল এই হাসপাতাল কাজ করবে কিভাবে? প্রথমত মিরপুর ক্লাব লি. ভার্চুয়াল হাসপাতাল বিভিন্ন এলাকায় পিপি বা পয়েন্ট পার্সন নিযুক্ত থাকবে। এই পয়েন্ট পার্সনকে স্বাস্থ্য কর্মীও বলা যেতে পারে। প্রথম অবস্থায় ঢাকার মধ্যে ১০০ 'পয়েন্ট পার্সন' নিয়োগ দেয়া হবে। পর্যায়ক্রমে সারা বাংলাদেশে ১০০০ পয়েন্ট পার্সন নিয়োগ দেওয়া হবে। এইসব পয়েন্ট পার্সনের কাজ থাকবে ঐসব এলাকার রোগীর তথ্য প্রদান করা। সেই তথ্যানুযায়ী মিরপুর ক্লাব লি. ভার্চুয়াল হাসপাতাল সেখানে স্বাস্থ্যকর্মী বা নার্স পাঠাবেন। স্বাস্থ্যকর্মী বা নার্স রোগীর সাথে প্রয়োজনীয় সেবার বিস্তারিত আলোচনা করবেন। বিস্তারিত জানার পর রোগী সেবা নিতে রাজী হলে তাকে ভার্চুয়াল ডাক্তার এর সাথে সাক্ষাত করিয়ে দেওয়া হবে। ডাক্তার যদি মনে করেন রোগীর বিভিন্ন পরীক্ষা করা প্রয়োজন সেই অনুযায়ী মিরপুর ক্লাব লি. ভার্চুয়াল হাসপাতাল এর নেটওয়ার্কে থাকা ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে লোক পাঠানো হবে প্রয়োজনীয় স্যাম্পল নেয়ার জন্য। পরীক্ষা শেষে রোগীকে রিপোর্ট প্রদান করা হবে। পরবর্তীতে একই প্রক্রিয়ায় ডাক্তার রিপোর্ট দেখে চিকিৎসা প্রদান করবেন।

এই হাসপাতালের মূল লক্ষ্য সবার জন্য চিকিৎসা সেবা প্রদান। এই হাসপাতালে নিযুক্ত ডাক্তারদের সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন ফি নির্ধারণ করা থাকবে। যদি কোন ক্ষেত্রে রোগীর চিকিৎসা ব্যয় পরিশোধ করার সক্ষমতা না থাকে সেক্ষেত্রে মিরপুর ক্লাবের যাকাত ফান্ড থেকে খরচ বহন করা হবে। পর্যায়ক্রমে সমগ্র বাংলাদেশ এবং প্রবাসী বাংলাদেশিদের কাছেও চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দিতে মিরপুর ক্লাব লি. ভার্চুয়াল হাসপাতাল সচেষ্ট ভূমিকা রাখবে।

ইত্তেফাক/আরএ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
০১ জুন, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন