বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা রোববার, ১২ জুলাই ২০২০, ২৮ আষাঢ় ১৪২৭
২৮ °সে

ঝুলে গেছে রাজধানীর রেড জোন এলাকার লকডাউন

সিদ্ধান্তহীনতায় বাড়ছে সংক্রমণ
ঝুলে গেছে রাজধানীর রেড জোন এলাকার লকডাউন
লকডাউন। ইত্তেফাক

রাজধানীর ৪৫টি এলাকাকে রেড জোন হিসেবে ঘোষণা দেওয়ার কয়েক দিনের মধ্যে লকডাউন করার পরিকল্পনা থাকলেও সেটি ঝুলে গেছে। ঘোষণার ১৪ দিন পার হলেও তা কার্যকর করতে পারেনি দুই সিটি করপোরেশন। তবে পরীক্ষামূলকভাবে পূর্ব রাজাবাজার লকডাউন করেছে উত্তর সিটি করপোরেশন, যার কারণে মিলছে সুফল। কিন্তু দক্ষিণ সিটি করপোরেশন পরীক্ষামূলকভাবেও একটি এলাকা লকডাউন ঘোষণা করতে পারেনি। এর আগে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন থেকে দাবি করা হয়েছিল, এলাকাভিত্তিক ম্যাপিং না দিলে তারা লকডাউনে যেতে পারবে না। তবে পরবর্তী সময়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে ওয়ারী লকডাউনের নির্দেশনা এলেও এখনো তা বাস্তবায়ন করা হয়নি। লকডাউন বাস্তবায়ন সভা ডেকেও সেটি বাতিল করেছে দক্ষিণ সিটি।

এ বিষয়ে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সচিব আকরামুজ্জামান বলেন, ‘আমরা প্রস্তুতি নিলেও সরকারি নির্দেশনা না আসায় সেটি করা সম্ভব হচ্ছে না।’ এতদিন পার হয়ে গেলেও লকডাউনের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত না হওয়ায় নগর পরিকল্পনাবিদ আদিল মোহাম্মদ বলেন, ‘লকডাউন করা হবে নাকি হবে না, এ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতেই রেড জোন ঘোষণার পরে অর্ধেক মাস পার হয়ে গেছে। এর মধ্যে কিন্তু সংক্রমণ থেমে নেই, বরং বাড়ছে। আমার কাছে মনে হয়েছে এটি দৃঢ় উদ্যোগের অভাব, আর সমন্বয়হীনতা।’

উত্তর সিটি করপোরেশন গত ১০ জুন পূর্ব রাজাবাজার পরীক্ষামূলক ১৪ দিন লকডাউন করে। পরে পরিস্থিতি উন্নতি হওয়ায় সেখানে আরো সাত দিন বৃদ্ধি করে। সিটি করপোরেশন বলছে, পূর্ব রাজাবাজারে লকডাউনের ফলে সংক্রমণ কিছুটা কমেছে। তবে পুরো ২১ দিন লকডাউন শেষ হলে আরো উন্নতি বোঝা যাবে। এই এলাকা লকডাউন হলেও উত্তর সিটি করপোরেশনের ঘোষিত আরো ১৭টি রেড জোন এলাকা কেন লকডাউন সম্ভব নয় এমন প্রশ্নের উত্তরে সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘দেখুন, আমাদের বলা হয়েছে উত্তরা রেড জোন। এখন উত্তরা তো আর ছোট এলাকা না। আমাকে হোল্ডিং নাম্বারসহ উল্লেখ করে দিতে হবে যে এসব এলাকা সিটি করপোরেশন থেকে লকডাউন করো, তাহলে আমরা লকডাউনে যেতে পারব, নয়তো সম্ভব নয়।’

গত ১৪ জুন করোনা প্রতিরোধে গঠিত কেন্দ্রীয় টেকনিক্যাল কমিটি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটির মোট ৪৫টি এলাকাকে ‘রেড জোন’ হিসেবে চিহ্নিত করে। ঢাকা উত্তর সিটির রেড জোন চিহ্নিত এলাকাগুলো হলো মিরপুর, মোহাম্মদপুর, কল্যাণপুর, গুলশান, বাড্ডা, বসুন্ধরা, ক্যান্টনমেন্ট, মহাখালী, তেজগাঁও, রামপুরা, আফতাবনগর, মগবাজার, এয়ারপোর্ট, বনশ্রী, রাজাবাজার, রায়েরবাজার, উত্তরা। আর ঢাকা দক্ষিণ সিটির রেড জোন চিহ্নিত এলাকাগুলো হলো যাত্রাবাড়ী, ডেমরা, মুগদা, গেন্ডারিয়া, ধানমন্ডি, জিগাতলা, লালবাগ, বাসাবো, শান্তিনগর, পরীবাগ, পল্টন, আজিমপুর, কলাবাগান, রমনা, সূত্রাপুর, মালিবাগ, কোতোয়ালি, টিকাটুলী, মিটফোর্ড, শাহজাহানপুর, মতিঝিল, ওয়ারী, খিলগাঁও, কদমতলী, সিদ্ধেশ্বরী, লক্ষ্মীবাজার, এলিফ্যান্ট রোড, সেগুনবাগিচা। এর মধ্যে শুধু উত্তর সিটির রাজাবাজার লকডাউন করা সম্ভব হয়েছে।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত