বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭
৩১ °সে

নার্সদের ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন বিএনএ ঢামেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক

নার্সদের ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন বিএনএ ঢামেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক
বিএনএ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শাখার সভাপতি মোহাম্মদ কামাল হোসেন পাটওয়ারীর ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান জুয়েল। ফাইল ছবি

করোনা কালীন এই দুর্যোগের সময়ে, নার্সদের সর্বোচ্চ ত্যাগের কথা স্মরণ করে বাংলাদেশের সকল নার্সদের ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশ নার্সেস এসোসিয়েশন (বিএনএ) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

সংগঠনের পক্ষ থেকে দেয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা বিনির্মাণের স্বপ্নকে বাস্তবে রূপদান দান করতে এবং মানুষের মৌলিক অধিকার স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করে করোনা কালীন এই দুর্যোগের সময়ে প্রথম সারির যোদ্ধা হিসেবে নার্সরা আজ সমগ্র পৃথিবী জুড়ে প্রশংসা কুড়িয়েছেন। আমাদের বাংলাদেশের নার্সরাও করোনা মোকাবেলায় নিজেদের জীবন উৎসর্গ করতে কখনও পিছপা হননি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে করোনা মোকাবেলায় ৫০৫৪ জন নার্স নিয়োগ দেওয়া হয়েছে এবং আরও ১০ হাজার নার্স নিয়োগের কার্যক্রম ইতোমধ্যে হাতে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী ড. জাহিদ মালিক।

এই বিষয়ে বাংলাদেশ নার্সেস এসোসিয়েশন (বিএনএ) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শাখার সভাপতি মোহাম্মদ কামাল হোসেন পাটওয়ারী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান জুয়েল এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, এই বৈশ্বিক মহামারী মোকাবেলায় বাংলাদেশের নার্সরা গত ৫ মাস যাবৎ সাহসের সাথে যুদ্ধ করে যাচ্ছে তা সত্যি প্রশংসা করার মতো। এই নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের সকল নার্সদেরকে ঈদ-উল-আযহার শুভেচ্ছা জানান।

তারা আরো বলেন, আজকে একটি পবিত্র দিন। এই দিনে অন্যান্য পেশাজীবীরা তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে একসাথে ঈদ পালন করলেও আমাদের নার্সরা গত দু'টি ঈদে ছুটিতে বাড়ি যেতে পারেননি। সারাদেশ ব্যাপী করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে কর্মরত নার্সগণকে প্রতি শিফটে দায়িত্ব পালনকালে ২১ দিন পরিবার পরিজন থেকে আলাদা হয়ে আবাসিক হোটেলে থাকতে হচ্ছে। ইতোমধ্যে ঢামেক হাসপাতালে ৪২০ জনসহ সারাদেশে ২০০০ এর মত নার্স করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। করোনা যুদ্ধে শহীদ হয়েছেন ৮ জন নার্স কর্মকর্তা। জীবন শঙ্কা নিয়ে ঈদ ও পরিবার এর আনন্দ ত্যাগ করেই নার্সগণ নিবিড়ভাবে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। যা অত্যন্ত কষ্টের ও ত্যাগের বিষয়। তারপরও আমরা বাংলাদেশের মানুষের সেবা দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে যে কোন মহামারী মোকাবিলা করে এই দেশের মানুষের স্বার্থে নিজেদের জীবন উৎসর্গ করতেও দ্বিধা করবো না।

এই নেতারা বলেন, 'আশাকরি বাংলাদেশের মানুষ নার্সদের এই ত্যাগের কথা মনে রাখবে এবং তাদের প্রাপ্য সন্মান টুকু দিতে কোন কার্পণ্য বোধ করবেন না। এই নেতারা বলেন, সকল নার্সদের উন্নয়নের রূপকার নার্স দরদী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য সকল নার্স ভাই-বোনেরা দোয়া করবেন এবং সকল নার্স ভাই-বোনদের জন্য ঈদের শুভেচ্ছা।'

ইত্তেফাক/আরএ/এস(পি)

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত