বিপুল পরিমাণ ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ ফেসবুকের স্থানীয় এজেন্টের বিরুদ্ধে

বিপুল পরিমাণ ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ ফেসবুকের স্থানীয় এজেন্টের বিরুদ্ধে
ফেসবুকের স্থানীয় এজেন্টের বিরুদ্ধে বিপুল অঙ্কের ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ উঠেছে। ছবি: প্রতীকী

এইচটিটিপুল বাংলাদেশ লিমিটেড নামে ফেসবুকের স্থানীয় এজেন্টের বিরুদ্ধে ৯৩ লাখ টাকার ভ্যাট (মূল্য সংযোজন কর) ফাঁকির অভিযোগ উঠেছে। এই এজেন্ট ইতিমধ্যে ৩১টি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ছয় কোটি ২২ লাখ টাকার বিজ্ঞাপন সংগ্রহ করে। এর ওপর ১৫ শতাংশ হিসেবে ৯৩ লাখ ৩২ হাজার টাকার ভ্যাট কর্তন করেছে। কিন্তু ওই টাকা সরকারের ঘরে জমা দেয়নি। শুধু তাই নয়, প্রতিষ্ঠানটি এখন পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট ভ্যাট অফিসে ভ্যাট রিটার্নও জমা দেয়নি। সম্প্রতি ভ্যাট গোয়েন্দা বিভাগের অনুসদ্ধানে এ ফাঁকি ধরা পড়েছে।

ভ্যাট গোয়েন্দা বিভাগের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, ভ্যাট অফিসে দেওয়া ঠিকানা অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটিকে খুঁজতে গিয়ে কোনো অস্তিত্বই পাওয়া যায়নি। প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে মামলা করেছে ভ্যাট গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর।

গত মে মাসে ফেসবুকের স্থানীয় এজেন্ট এইচটিটিপুল বাংলাদেশ লিমিটেড ভ্যাট নিবন্ধন গ্রহণ করে। প্রতিষ্ঠানটির ঠিকানা ব্যবহার করা হয় কাওরানবজারের শাহ আলী টাওয়ারের ১১ তলা। কিন্তু অনুসন্ধানে গিয়ে ভ্যাট গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তারা কোনো অস্তিত্ব পায়নি।

ভ্যাট গোয়েন্দা বিভাগের একজন ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তা ইত্তেফাককে বলেন, বিদ্যমান ভ্যাট আইন অনুযায়ী, অফিস পরিবর্তন করতে হলে ভ্যাট অফিসকে জানাতে হয়। অন্যদিকে ভ্যাট নিবন্ধনধারী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে প্রতি মাসে তাদের ক্রয় বিক্রয়ের রিটার্ন দাখিল করতে হয়, যা ভ্যাট রিটার্ন নামে পরিচিত। কিন্তু এ প্রতিষ্ঠানটি এসব নিয়ম মানেনি। ফলে সরকার বিপুল পরিমাণ রাজস্ব হারিয়েছে।

আরও পড়ুন: মসজিদে আযান দেওয়া অবস্থায় বাবাকে জবাই করার চেষ্টা

ভ্যাট গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান ইত্তেফাককে বলেন, বিদ্যমান আইন অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। তারা আরও অনিয়মের সঙ্গে জড়িত কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত