সাভারে স্কুলছাত্রী খুন

দুই দিনেও গ্রেফতার হয়নি ‘ঘাতক’ মিজান

দুই দিনেও গ্রেফতার হয়নি ‘ঘাতক’ মিজান
স্কুলছাত্রী নীলা রায়। ছবি: ইত্তেফাক

সাভারে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় স্কুলছাত্রী নীলা রায়কে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় দুই দিন পেরিয়ে গেলেও ঘটনার ‘মূলনায়ক’ বখাটে মিজানুর রহমান মিজানকে পুলিশ গ্রেফতার করতে পরেনি। নিহত নীলার বাবা নারায়ণ রায় বাদী হয়ে গত সোমবার রাতে সাভার মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন। মামলায় ‘ঘাতক’ মিজানুর রহমান ও তার মা-বাবাকে আসামি করা হয়েছে। এছাড়া অজ্ঞাত আরো দুই-তিন জনকে আসামি করা হয়েছে। তবে পুলিশ এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

এদিকে সোমবার রাতেই মানিকগঞ্জের হরিরামপুরে বালিরটেকে নিজ গ্রামে নীলা রায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে। নিহতের বাবা জানান, আমি আমার মেয়ে হত্যার বিচার চাই। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক নির্মল কুমার দাস জানান, জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। অল্প সময়ের মধ্যেই তাদের গ্রেফতার করা হবে। এ ঘটনার পর ঢাকা জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইদুর রহমানসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সাভারের বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ বিভিন্ন মহল এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছে। পূজা উদ্যাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল চ্যাটার্জি ও মহিলা ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দিপালী চক্রবর্ত্তী ঘটনাস্থলে আসেন। তারাও এ হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান।

গত রবিবার রাত ৯টার দিকে স্কুলছাত্রী নীলা তার ভাইকে নিয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার পথে সাভার গার্লস স্কুলের পাশের গলিতে পৌঁছলে, আগে থেকে ওত পেতে থাকা বখাটে মিজানুর ও তার কয়েক সহযোগী তাদের রিকশা থেকে নামিয়ে পরিত্যক্ত একটি বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে নীলাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং তার প্রস্তাবে রাজি হওয়ার জন্য চাপ দেয়; কিন্তু নীলা রাজি না হওয়ায় মিজানুর ক্ষিপ্ত হয়ে নীলাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিত্সাধীন অবস্থায় ঐ রাতেই নীলার মৃত্যু হয়।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত