প্রকাশিত সংবাদে পুলিশ সদর দপ্তরের বক্তব্য

প্রকাশিত সংবাদে পুলিশ সদর দপ্তরের বক্তব্য
বাংলাদেশ পুলিশ

গত ১৬ অক্টোবর দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় প্রকাশিত ‘পুলিশে বিভাগীয় পদোন্নতিতে জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘনের অভিযোগ’ শীর্ষক সংবাদে ‘পুলিশ সদর দপ্তর অনুমোদিত তালিকায় (পিএএল) সিনিয়র নিরস্ত্র ইন্সপেক্টরদের উপেক্ষা করে জুনিয়র সশস্ত্র ইন্সপেক্টরদের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে’ মর্মে প্রতিবেদনটি পুলিশ সদর দপ্তরের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এ সংবাদের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ পুলিশের পক্ষ থেকে সহকারী মহাপরিদর্শক (মিডিয়া) মোঃ সোহেল রানা বক্তব্য দিয়েছেন। তার দেওয়া বক্তব্য উপস্থাপন করা হলো।

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস আইন-১৯৮১ অনুযায়ি বিসিএস (পুলিশ) ক্যাডারে সহকারী পুলিশ সুপারের মোট মঞ্জুরিকৃত পদের মধ্যে সহকারী পুলিশ সুপার পদের দুই তৃতীয়াংশ সরাসরি নিয়োগযোগ্য এবং এক তৃতীয়াংশ পুলিশ ইন্সপেক্টরদের মধ্য হতে বিভাগীয় পদোন্নতিযোগ্য। পুলিশে তিন ধরনের ইন্সপেক্টর যথাক্রমে (১) ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র), (২) ইন্সপেক্টর (সশস্ত্র) এবং (৩) ইন্সপেক্টর (শহর ও যানবাহন) এর পদ রয়েছে। এ তিন ধরনের পুলিশ ইন্সপেক্টর পদের ফিডারপদ হলো যথাক্রমে (১) সাব-ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র), (২) সাব-ইন্সপেক্টর (সশস্ত্র) এবং সার্জেন্ট/টাউন সাব-ইন্সপেক্টর। উক্ত পদসমূহের নিয়োগ, কর্মপরিধি, পদোন্নতির শর্তাবলি এবং জ্যেষ্ঠতা সম্পূর্ণ আলাদা হওয়ায় তাদের জন্য প্রযোজ্য ভিন্ন ভিন্ন নিয়োগ ও পদোন্নতির শর্তাবলি পূরণসাপেক্ষে পরবর্তী পদে পদোন্নতি প্রদান করা হয়ে থাকে। এছাড়া এক পদের বিপরীতে নিয়োগপ্রাপ্ত কোনো কর্মকর্তা অন্য পদে স্থানান্তরিত হবার কোনো সুযোগ নেই।

বিভাগীয় পদোন্নতির মাধ্যমে পূরণযোগ্য পদে অর্থাৎ এএসপি’র শূন্যপদের বিপরীতে পদোন্নতি প্রদানকালে বিভিন্ন ক্যাটাগরির ইন্সপেক্টরের মঞ্জুরিকৃত পদের আনুপাতিক হারে স্ব স্ব স্থায়িকরণ তালিকা হতে জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে এএসপি পদসমূহ পূরণ করা হয়। বর্তমানে পুলিশ ইন্সপেক্টরের মোট ৬,৮৬৯টি মঞ্জুরিকৃত পদের বিপরীতে স্ব-স্ব পদের আনুপাতিক হার যথাক্রমে ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) ৪৯৫৩টি পদ বিবেচনায় ৭২.১১%, ইন্সপেক্টর (সশস্ত্র) ৯৩৭টি পদ বিবেচনায় ১৩.৬৪% এবং ইন্সপেক্টর (শহর ও যানবাহন) ৯৭৯টি পদ বিবেচনায় ১৪.২৫% কোটা নির্ধারিত রয়েছে। এক্ষেত্রে পুলিশ ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র/সশস্ত্র/শহর ও যানবাহন) পদে স্থায়িকরণের ক্ষেত্রে স্ব স্ব ক্যাটাগরির বিপরীতে সনভিত্তিক প্রণীত পিএএল-এর অনুমোদিত তালিকাভ‚ক্তির মধ্যে উপযুক্ত প্রার্থীদের পদোন্নতি প্রদানের পর ঐ ক্যাটাগরির প্রাপ্য অপূর্ণ অংশ একই ক্যাটাগরির জন্য সংরক্ষিত রেখে পরবর্তী সনে প্রণীত স্থায়ীকরণের তালিকা হতে জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে পদোন্নতি প্রদান করা হয়।

গত ১২ অক্টোবর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ হতে জারিকৃত প্রজ্ঞাপনে স্ব স্ব ক্যাটাগরির জন্য নির্ধারিত কোটার বিপরীতে নিরস্ত্র, সশস্ত্র এবং শহর ও যানবাহন- এ তিন শ্রেণির ইন্সপেক্টর হতে এএসপি পদে পদোন্নতি প্রদান করা হয়েছে। এ পদোন্নতি প্রদানের ক্ষেত্রে প্রতিটি শ্রেণির জন্য নির্ধারিত কোটা সুনির্দিষ্টভাবে বজায় রাখা হয়েছে। এখানে পুলিশ ইন্সপেক্টরের এক শ্রেণির জন্য নির্ধারিত প্রাপ্য কোটায় অন্য শ্রেণিকে পদোন্নতি প্রদান করার কোনো সুযোগ নেই। অধিকন্তু পুলিশ ইন্সপেক্টরের কোনো শ্রেণির কোটায় নির্ধারিত প্রাপ্য অংশেও কোনো জ্যেষ্ঠতা ক্ষুন্ন হয়নি। যেহেতু পুলিশ ইন্সপেক্টরের জন্য নির্ধারিত কোটা যথাযথভাবে অনুসরণপূর্বক পদোন্নতি প্রদান করা হয়েছে সেহেতু উক্ত পদোন্নতি প্রদানের ক্ষেত্রে জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘনের আনীত অভিযোগটি ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

ইত্তেফাক/আরএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত