ঢাকা সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯, ৯ বৈশাখ ১৪২৬
৩৩ °সে

আবু বকর চৌধুরী স্মরণে মিলাদ মাহফিল

আবু বকর চৌধুরী স্মরণে মিলাদ মাহফিল
আশিয়ান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মসজিদে মাহফিলে মুসল্লিরা। ছবি: সংগৃহীত

মানবকণ্ঠের প্রয়াত ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বকর চৌধুরীর রুহের মাগফেরাত কামনায় এক মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বাদ জুমা পত্রিকাটির কার্যালয় সংলগ্ন আশিয়ান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মসজিদে এ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

মাহফিলে দোয়া পরিচালনা করেন আশিয়ান গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া। এছাড়াও মানবকণ্ঠ পরিবারের সদস্যরা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

মিলাদ মাহফিলে আশিয়ান গ্রুপের এমডি মো. নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া বলেন, আবু বকর চৌধুরী ছিলেন একজন নিখাদ পেশাদার সাংবাদিক। সংবাদের মানুষ। সর্বোপরি একজন ভালো মানুষ ছিলেন। তিনি যেখানে হাত দিয়েছেন সেখানেই সফল হয়েছেন। তিনি মানবকণ্ঠকে পাঠকনন্দিত করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। আবু বকর চৌধুরীর শূন্যতা পূরণের নয়। আবু বকর চৌধুরীর স্বপ্ন পূরণে মানবকণ্ঠ পরিবারের সব সদস্যকে মরহুমের মতো কাজের প্রতি যত্নশীল ও নিষ্ঠাবান হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

দৈনিক মানবকণ্ঠের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ভূঁইয়া বলেন, আবু বকর চৌধুরীকে জানাটা বড় প্রয়োজন। সত্যি বলতে কী আবু বকর চৌধুরী শুধু সম্পাদক ছিলেন না, তিনি ছিলেন আমাদের ভাইয়ের মতন। আবু বকর চৌধুরী পেশাদারিত্ব ছিল বিরল। তিনি জানতেন আগামীকাল পাঠক কী পড়তে চায়।

আরো পড়ুন: ‘আপনি জেগে থাকেন বলে নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারে বাংলাদেশ’

মানবকণ্ঠের জেনারেল ম্যানেজার (প্রশাসন) সৌরভ হাসান ভূঁইয়া বলেন, আমরা দিনের পর দিন ভাল মানুষগুলোকে হারিয়ে ফেলছি, শক্তিগুলোকে হারিয়ে ফেলছি। যিনি চলে যান তিনি সব নিয়ে চলে যান, যিনি চলে যান তিনি তার সমস্ত অঙ্গীকার নিয়ে চলে যান, রেখে যান শুধু কর্ম। আজ আবু বকর স্যার যে জিনিসটি রেখে গেছেন সেটি হচ্ছে কর্ম। যতদিন মানবকণ্ঠের কার্যক্রম থাকবে, ততোদিন আবু বকর চৌধুরী থাকবেন।

এদিকে শুক্রবার আসরের নামাজের পর ধানমন্ডিতে মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বকর চৌধুরীর বাসায় মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনায় কুলখানি অনুষ্ঠিত হয়। রাজধানীর ধানমন্ডিতে অবস্থিত বাসার গ্রাউন্ড ফ্লোরে আয়োজিত দোয়া মাহফিলে মানবকণ্ঠের প্রকাশক ও ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক জাকারিয়া চৌধুরী বলেন, একজন পরিপূর্ণ মানুষ ছিলেন আবু বকর চৌধুরী। একজন সফল সংগঠক, দলনেতা ছিলেন। তাকে হারিয়ে এখন একা মনে হয়।

সেখানে উপস্থিত ছিলেন- মরহুমের পরিবারের সদস্য, আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধবরা। মানবকণ্ঠ থেকে উপস্থিত ছিলেন পত্রিকাটির সহকারী বার্তা সম্পাদক জোবায়ের আহমদ নবীন, স্পোর্টস ইনচার্জ মহিউদ্দিন পলাশ, সিনিয়র রিপোর্টার রেজাউর রহমান রিজভী, সহ-সম্পাদক, মো. ফরহাদ হোসেন, মনির জারিফ প্রমুখ।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ এপ্রিল, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন