কুর্মিটোলায় পৌঁছেছে করোনা টিকা

কুর্মিটোলায় পৌঁছেছে করোনা টিকা
কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল —আব্দুল গনি

কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে বুধবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে করোনার টিকা পৌঁছেছে। একজন নার্সসহ ২৫ জনকে টিকা দেওয়ার মধ্য দিয়ে দেশে আজ বুধবার করোনা ভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দুপুর সাড়ে ৩টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন।

এদিকে, টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের ব্যাপক প্রস্তুতি চলছে হাসপাতালটিতে। ইতোমধ্যে মঞ্চ তৈরির কাজ শেষ হয়েছে। হাসপাতাল ভবনের প্রবেশ মুখ থেকে ভেতরের মঞ্চ পর্যন্ত ব্যানার-ফেস্টুন দিয়ে সাজানো হয়েছে। এছাড়া মঞ্চের বাইরে একটি বড় পর্দায় টিকাদান দৃশ্য দেখানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু বেরোনিকা কস্তা প্রথম কোভিড-১৯ টিকা পাবেন। নার্স রুনুর পর তার সহকর্মী আরও দুইজন সিনিয়র স্টাফ নার্স মুন্নি খাতুন ও রিনা সরকারকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

টিকা প্রদানের জন্য প্রস্তুত স্বাস্থ্যকর্মীরা —আব্দুল গনি

এছাড়া দেশে প্রথম চিকিৎসক হিসেবে টিকা পাবেন মেডিসিন কনসালট্যান্ট ডা. আহমেদ লুত্ফর মবিন। এদিন বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সম্মুখসারির কোভিড যোদ্ধাদের (যেমন: নার্স, চিকিৎসক, সহকারী স্বাস্থ্যকর্মী, বীর মুক্তিযোদ্ধা, পুলিশ ও সেনাসদস্য ও সাংবাদিক) মধ্যে থেকে ২৫ জনকে টিকা দেওয়া হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক গতকাল মঙ্গলবার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে টিকাদান কার্যক্রম শুরুর প্রস্তুতি দেখতে এসে সাংবাদিকদের বলেন, ‘এই হাসপাতালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা ভাইরাসের টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধন করবেন। এর মাধ্যমেই সারাদেশে টিকা দেওয়া শুরু হয়ে যাবে।’

আরও পড়ুন: করোনা টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন আজ

এদিকে, আগামীকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার পাঁচটি হাসপাতালের ৪০০ থেকে ৫০০ জনকে টিকা দেওয়া হবে। এই পাঁচটি হাসপাতাল হলো—কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হাসপাতাল, বিএসএমএমইউ, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও মুগদা হাসপাতাল।

সারাদেশে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি। প্রথম যারা টিকা পাবেন, তাদের মধ্যে ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী ছাড়াও পুলিশ, সেনাবাহিনী, গণমাধ্যমকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ থাকবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

ভ্যাকসিন প্রয়োগের পর কোনোরকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলে তার জন্য প্রতিটি হাসপাতালেই আলাদাভাবে চিকিৎসাসেবা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বলেও স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান।

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x