রেলওয়ে, সিভিল এভিয়েশন ও আশিয়ান সিটির বিরুদ্ধে ডিএনসিসির মামলা

রেলওয়ে, সিভিল এভিয়েশন ও আশিয়ান সিটির বিরুদ্ধে ডিএনসিসির মামলা
মশকনিধন পরিদর্শনে ডিএনসিসি মেয়র। ছবি: সংগৃহীত

বিমানবন্দরের পিছনে রেলওয়ের একটি খাল এবং বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (সিভিল এভিয়েশন) একটি জায়গায় বিপুল পরিমাণ কচুরিপানা, আবর্জনার স্তূপ, মশার অসংখ্য লার্ভা দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করে ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, ‘এগুলো উনাদেরই পরিষ্কার করার কথা। কিন্তু উনারা তা করছেন না। আমরা এখন মামলায় যাচ্ছি, সোজা আঙ্গুলে আর হচ্ছে না।’

আজ সোমবার ( ১৫ মার্চ) সকাল থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত বিমানবন্দর রেলস্টেশনের কয়েকটি এলাকায় চলমান সমন্বিত মশক নিধন অভিযান (ক্রাশ প্রোগ্রাম) পরিদর্শন এসে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি হাজী ক্যাম্পের বিপরীত দিকে সীমানা প্রাচীর দিয়ে ঘেরা একটি স্থানে বিপুল পরিমাণ পলিথিন, আবর্জনা, জঙ্গল, জঞ্জাল দেখে সিভিল এভিয়েশনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তারপর মেয়র আশিয়ান সিটি পরিদর্শন করেন। সেখানেও বিপুল পরিমাণ কচুরিপানা, বদ্ধ পানি, আবর্জনা ইত্যাদি দেখতে পান। এসব দেখার পরে তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন।

ডিএনসিসির অঞ্চল-৭ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতাকাব্বীর আহমেদ বিকাল ৫টায় জানান যে, বিমানবন্দর রেলস্টেশন, সিভিল এভিয়েশন এবং আশিয়ান সিটির বিরুদ্ধে আদালতে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/এসআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x