সংকটাপন্ন রোগীরা অগ্রাধিকার পাচ্ছেন ঢাকা মেডিকেলে

সংকটাপন্ন রোগীরা অগ্রাধিকার পাচ্ছেন ঢাকা মেডিকেলে
ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। ছবি: ইত্তেফাক

করোনা সংক্রমণ বাড়লেও প্রথমবারের তুলানায় এবার ভিন্ন চিত্র লক্ষ্য করা যাচ্ছে রাজধানীর সরকারি হাসপাতালগুলোতে। স্বাভাবিকভাবেই কোন আশংকা না করে রোগীরা চিকিৎসা নিতে আসছেন হাসপাতালে।

কোভিড ছাড়াও জরুরি বিভাগে যারা আসছেন চিকিৎসা নিয়ে ফিরে যাচ্ছেন বাড়িতে। সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকরা বলছেন আগের মতো মানুষ সেরকম আতংকে নেই। সেখানে স্বজনরা রোগীদের ফেলে চলে যেতেন এবার ভয় না পেয়ে পাশে থাকছেন। এদিকে ঢাকা মেডিকেলের পরিচালক জানিয়েছেন ক্রিটিক্যাল বা অক্সিজেন প্রয়োজন ছাড়া সাধারণ রোগীদের রাখার সুযোগ নেই।

মঙ্গলবার ( ৬ এপ্রিল) ঢাকা মেডিকেলে সরেজমিনে ঘুরে জরুরি বিভাগে দেখা যায় রোগীদের তেমন ভিড় নেই। নির্দেশনা মেনেই চিকিৎসা নিচ্ছেন রোগীরা। যেসব রোগীরা জরুরি বিভাগে আসছেন ভর্তির প্রয়োজন হলে স্বাভাবিকভাবেই ভর্তি হচ্ছেন।

ঢাকা মেডিকেলে নিয়মিত রোগী আনা-নেওয়া করেন বাবুল মিয়া। রোগী কম থাকায় জরুরি বিভাগের বাইরে খোলা জায়গায় সহকর্মীদের সঙ্গে আড্ডা দিয়ে অলস সময় পার করছেন । তিনি বলেন, কয়েকদিন ধরে সাধারণ রোগীদের চাপ একেবারে কমে যাচ্ছে। রোগীর চাপ খুব একটা নেই। আর রোগী না থাকলে আমাদেরও অবসর সময় কাটাতে হয়।

দুর্ঘটানায় আহত স্বজনকে নিয়ে জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিতে আসছেন মশারফ হোসেন। তিনি বলেন, আমার চাচাতো ভাইকে ঢাকা মেডিক্যালে নিয়ে আসার আগে চিন্তা করেছিলাম নিয়ে আসলে রোগী ধরবে কি না। চিকিৎসা নিতে আমাদের কোন অসুবিধা হয়নি। নিয়ম মেনেই চিকিৎসা দিচ্ছেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালের আবাসিক সার্জন ক্যাজুয়ালটির চিকিৎসক ডা. মো. আলাউদ্দিন বলেন, আমাদের সার্জন ক্যাজুয়ালটি বিভাগের ১২ জন চিকিৎসকের মধ্যে ৪ জনের করোনা পজিটিভ। এছাড়া জরুরি বিভাগের দুইজন চিকিৎসকেরও করোনা পজিটিভ এসেছে। আমাদের কর্মী কম থাকা সত্ত্বেও আমরা করোনা ঝুঁকি নিয়েই চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছি। এতে কোন ব্যাঘাত হচ্ছে না।

তিনি সবাইকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, মেডিসিন বিভাগ ব্যাতিত বাকি সব আগের মতই চলেছে। যাদের ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসা নেওয়ার প্রয়োজন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চিকিৎসা নিতে আসেন। আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা রয়েছে রোগীদেকে সেবা দেওয়ার।

সার্বিক প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাজমুল হক ইত্তেফাক অনলাইনকে বলেন, কোভিড রোগীদের সংখ্যা জাতীয়ভাবে সারা দেশজুরে যেভাবে বাড়ছে ঠিক একইভাবে ঢাকা মেডিকেলেও রোগীদের চাপ রয়েছে। এখানে কোভিড রোগীদের জন্য ৮শ বেড রয়েছে। এর মধ্যে ৬০টি আইসিও বেড রয়েছে, পাশাপাশি ওএসডি বেড রয়েছে এবং প্রত্যাকটি সাধারণ বেডের সঙ্গে অক্সিজেন এর ব্যবস্থা রয়েছে। যাদের যেটি প্রয়োজন হচ্ছে তাদেরকে সেখানে রাখা হচ্ছে। এছাড়া এসব কোভিড রোগীদের অক্সিজেন প্রয়োজন হচ্ছে না বা তেমন ক্রিটিক্যাল নয় শুধু মেডিসিন নিতে হচ্ছে তাদেরকে বাসায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

ইত্তেফাক/এসজেড

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x