ডেমরায় গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

ডেমরায় গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ
প্রতীকী ছবি। ছবি: সংগৃহীত

গতকাল সকালে ডেমরার সারুলিয়া আমতলা এলাকার প্রবাসী আনোয়ার হোসেনের বাড়ী থেকে সায়মা (২২) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মৃতের পরিবারের লোকজনের দাবি, মেয়েটিকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এছাড়া স্বামী বিদেশে থাকায় প্রতিনিয়ত সায়মাকে শ্বশুরবাড়ির নির্যাতন সইতে হতো। লক্ষীপুরের সদর থানার মনোহরপুর গ্রামের আলমগীর খানের মেয়ে সায়মা।

সায়মার ফুপাতো ভাই মুরাদ জানান, সায়মার জন্মের পর ৬ মাসের মধ্যে তার মায়ের মৃত্যু হয়। এদিকে বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করায় পশ্চিম যাত্রাবাড়ী এলাকায় ফুপুর বাড়ীতেই বড় হয় সায়মা। এক বছর আগে প্রতিবেশী রেজাউল করিমের ছেলে অনিকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের মাধ্যমে বিয়ে হয় সায়মার। গত ৬ মাস আগে বিষয়টি জেনে মুরাদ সায়মার শ্বশুরবাড়িতে গেলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালসহ সায়মাকে দেখে নেবে বলে হুমকি দেয় অনিকের পরিবার।

গত ৫ মাস আগে অনিককে কৌশলে দুবাইতে পাঠিয়ে দেন তার বাবা। তারপর থেকে যৌতুকের দাবিতে সায়মার ওপর শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন চালাতে থাকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন। মোবাইল ফোনে প্রায়ই ফুপুর সঙ্গে এসব বিষয় জানাতো সায়মা। গত দুই আড়াই মাস আগে শ্বশুর রেজাউল করিম যাত্রাবাড়ীর বাড়ি বিক্রি করে ডেমরায় একটি ভাড়াবাড়িতে চলে আসেন। নিজের ভরন পোষনের জন্য যাত্রাবাড়ীতে শ্বশুরের কসমেটিকের দোকানে কাজ করে সংসারে থাকতে হতো সায়মার।

ডেমরা থানার ওসি খন্দকার নাসির উদ্দিন বলেন, সায়মার মৃত্যুর বিষয়টি তদন্তে করে দেখা হচ্ছে।

ইত্তেফাক/এনএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x