আইন করে ই-সিগারেট বন্ধের দাবি

আইন করে ই-সিগারেট বন্ধের দাবি
অনলাইন সেমিনার। ছবি ভিডিও থেকে নেওয়া।

আইনের মাধ্যমে ই-সিগারেট বন্ধের দাবি জানিয়েছে ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)। মঙ্গলবার (১১ মে) দুপুরে ই-ক্যাব ও ঢাকা আহছানিয়া মিশনের যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এক অনলাইন সেমিনারে এ দাবি জানানো হয়।

সেমিনারের আলোচ্য বিষয় ছিল-‘তামাকমুক্ত বাংলাদেশ ২০৪০ গঠনে আইন সংশোধন: প্রসঙ্গ ই-সিগারেট’।

ই-ক্যাবের যুগ্ম সম্পাদক নাসিমা আক্তার নিশার সভাপতিত্বে সেমিনারে আলোচক হিসেবে ছিলেন-জেনারেল ম্যানেজার জাহাঙ্গীর আলম শোভন, এফ কমার্স এলায়েন্সের সদস্য হুরাইরা শিশির, মেম্বার ওয়েলফেয়ার স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার জাকির হোসেন, ইনভেস্টমেন্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ফারহা মাহমুদ তৃণা, কর্পোরেট এ্যাফেয়ার স্ট্যান্ডিং কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান হোসনে আরা খান নওরীন, রুরাল ই-কমার্স স্ট্যান্ডিং কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান জাহিদুজ্জামান সাইদ, কমপ্লেইন্ট ম্যানেজমেন্ট এন্ড লিগ্যাল ইস্যু স্ট্যান্ডিং কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার হাসান শাহরিয়ার, সদস্য এসকে নুরুল হুদা, ক্যাম্পেইন ফর টোবাকো ফ্রি কিডস বাংলাদেশের গ্র্যান্টস ম্যানেজার আবদুস সালাম মিয়া, সিনিয়র পলিসি এ্যাডভাইজার মো. আতাউর রহমান মাসুদ ও ঢাকা আহছানিয়া মিশনের স্বাস্থ্য সেক্টরের সহকারী পরিচালক মো. মোখলেছুর রহমান।

ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের প্রোগ্রাম অফিসার শারমীন আক্তার রিনির সঞ্চালনায় সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের প্রকল্প সমন্বয়কারী মো. শরিফুল ইসলাম।

ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের স্বাস্থ্য সেক্টরের সহকারী পরিচালক মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, ‘ই-সিগারেট বর্তমান প্রজন্মের কাছে স্টাইল ও আভিজাত্যের প্রতীক। আর যুব সমাজ যেহেতু অনলাইনের ওপর অনেকাংশেই নির্ভরশীল, সুতরাং অনলাইনে তামাকজাত পণ্যের সহজলভ্যতা তাদেরকে ই-সিগারেটের প্রতি আরও উৎসাহিত করবে।’

এ সময় অনলাইনে ই-সিগারেটসহ তামাকজাত পণ্যের বিক্রয় বন্ধে ই-ক্যাব এক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রাখতে পারে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

অনলাইনে ই-সিগারেট বিক্রয় থেকে বিরত থাকতে ই-ক্যাবের সদস্যদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে সংগঠনটির যুগ্ম সম্পাদক নাসিমা আক্তার নিশা বলেন, ‘তরুণ প্রজন্মকে রক্ষার্থে ই-সিগারেট বন্ধের জন্য আমরা যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করবো। ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনকে ধন্যবাদ এই ধরনের উদ্যোগ নেওয়ার জন্য।’

প্রায় দেড় হাজার সদস্য নিয়ে ই-কমার্স ইন্ডাস্ট্রিতে ই-ক্যাব শক্ত অবস্থানে রয়েছে। আর ১৯৯০ সাল থেকে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন তামাক নিয়ন্ত্রণে কাজ করে যাচ্ছে। তামাক নিয়ন্ত্রণে এবার উভয় প্রতিষ্ঠানের একত্রে কাজ করার অঙ্গীকার ২০৪০ সালে দেশকে তামাক মুক্ত করা জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণাকে আরও বেগবান করবে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x