মিথ্যা মামলার ভয় দেখিয়ে নিয়মিত ধর্ষণ, অতঃপর লিঙ্গ কর্তন

মিথ্যা মামলার ভয় দেখিয়ে নিয়মিত ধর্ষণ, অতঃপর লিঙ্গ কর্তন
ছবি: সংগৃহীত

নারীকে মিথ্যা মাদক মামলা ও অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার পুলিশের সোর্স রতন (২৮) বেশ কিছুদিন ধরে ঝাউবাড়ি এলাকার এক নারীকে বেশ কিছুদিন ধরে ধর্ষণ করে আসছিলো। শুক্রবার (১৮ জুন) রাত তিনটায় চাকু দিয়ে পুলিশ সোর্স রতনের লিঙ্গ কেটে দেয় ওই তরুণী। পরে এলাকাবাসী রতনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ জানায়, সোমবার (২১ জুন) সকাল ১১ টায় আহত রতনের প্রথম স্ত্রী মুক্তা বেগম তার স্বামীর লিঙ্গ কর্তনের বিষয় থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত তানজিল আক্তার প্রিয়াকে সোমবার বিকেলে থানার কদমতলী এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে।

আটক ওই নারী বলেন, রতন একজন পুলিশের সোর্স এবং এলাকার মাদক কারবারি। সে প্রায় সময় রাতে তার বাসায় গিয়ে মিথ্যা মাদক মামলায় জড়িত করার ও অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে যৌনশক্তি পিল ও বিভিন্ন মাদক নেশা খেয়ে তাকে লাগাতার ধর্ষণ করে আসছিলো। পুলিশ সোর্স রতনের ধর্ষণের হাত থেকে নিজেকে বাচাতে লিঙ্গ কর্তন করতে বাধ্য হয়েছেন তিনি। এব্যাপার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা একটি মামলা হয়েছে।

ইত্তেফাক/এমএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x