মশক নিধনে গিয়ে বেহাল সড়ক নিয়ে রোষানলে মেয়র

মশক নিধনে গিয়ে বেহাল সড়ক নিয়ে রোষানলে মেয়র
ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। 

ডেঙ্গু মশার লার্ভা ধ্বংসে চিরুনি অভিযানে গিয়ে বেহাল সড়ক সংস্কার না হওয়ায় নাগরিকদের রোষানলে পড়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) উত্তর সিটি করপোরেশনের ৪৯ নম্বর ওয়ার্ডের আশকোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মেয়র একটি নির্মাণাধীন ভবনকে জরিমানা করে গাড়িতে উঠার সময় তাকে ঘিরে ধরেন এলাকাবাসী।

তাদের মধ্যে একজন নিজেকে সাবেক সরকারি কর্মকর্তা ও মুক্তিযোদ্ধা পরিচয় দিয়ে বলেন, দীর্ঘদিন এই এলাকায় সড়কগুলো ভাঙ্গাচোরা। তার উপর বৃষ্টি হলেই কোমড় সমান পানি উঠে। কোন নাগরিক সুবিধা পাচ্ছিনা আমরা। আপনি এসব বিষয়ে কবে পদক্ষেপ নিবেন ? পরে তিনি তাদের আশ্বস্ত করে বলেন, খুব শীঘ্রই এই এলাকায় কাজ শুরু হবে। নতুন বাজেট হয়েছে নতুন ওয়ার্ডের জন্য। এটা বলেই তিনি দ্রুত গাড়িতে উঠে যান। পরে তাকে কেন এমন প্রশ্ন করা হলো এ নিয়ে ওই ব্যক্তি তোপের মুখে পড়েন মেয়রের সাথে থাকা লোকজনের। পরে এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিবাদ করলে তারা সেখান থেকে চলে যান।

অভিযানে ছয় লাখ টাকা জরিমানা:

ডিএনসিসি এলাকায় ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া বিস্তার রোধে বিভিন্ন এলাকায় মোবাইল কোর্টে ১০টি মামলায় সর্বমোট ৬ লাখ ৫৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এর মধ্যে আশকোনায় ১টি মামলায় নির্মাণাধীন ভবনকে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। চিরুনি অভিযানে একটি মামলায় সর্বোচ্চ জরিমানা এটি। ভবন মালিকের দাবি, বিল্ডিংয়ের কাজের জন্য রাখা পানিতে ব্লিচিং পাউডার ছিটানো হলেও তাকে অতিরিক্ত টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানার পরে মেয়র বলেন, সবাই যেন সচেতন হয় এ জন্য আমরা এখন বেশি করে জরিমানা করছি। তবে এলাকাবাসীর অভিযোগ, আজকে মেয়র আসার পরেই মশার স্প্রে করা হয়েছে। এর আগে মশক নিধনের কোন কর্মীকেই দেখা যায়নি।

ইত্তেফাক/এমএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x