গুলশান লেকে নৌকাডুবিতে তরুণীর মৃত্যু

গুলশান লেকে নৌকাডুবিতে তরুণীর মৃত্যু
গুলশান লেক। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর গুলশান লেকে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজের ১৩ ঘণ্টা পর সেলিনা আক্তার (১৯) নামে এক তরুণীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে যাত্রীবাহী নৌকাটি গুলশান লেকে ডুবে যায়। ওই নৌকার যাত্রী ছিলেন সেলিনা।

ঘটনার পর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত পানিতে তল্লাশি চালিয়ে তার সন্ধান পাননি ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা। পরে রাত ১০টার দিকে লেকের পানিতে ওই তরুণীর লাশ ভেসে ওঠে। সেলিনা বনানীর একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কর্মী ছিলেন। সকালে তিনি কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন।

ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানিয়েছে, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কড়াইল বস্তির পূর্ব পাশের ঘাট থেকে ১৪ জন যাত্রী নিয়ে একটি নৌকা গুলশান-১ ও ২ এর মাঝামাঝি ৩৩ নম্বর রোডের ঘাটে যাচ্ছিলো। লেকের মাঝামাঝি অংশে গেলে যাত্রীসহ নৌকাটি ডুবে যায়। ১৩ জন সাঁতরে পাড়ে উঠে এলেও সেলিনা আক্তার নিখোঁজ হন। নৌকাডুবির খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছান ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার দেওয়ান আজাদ বলেন, নৌকাডুবির খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে যায়। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত লেকের পানিতে তল্লাশি চালানো হয়। কিন্তু নিখোঁজের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

বনানী থানা পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে সেলিনার লাশ লেকের পানিতে ভেসে ওঠে। এরপরই স্বজনরা তার মরদেহ সেখান থেকে তুলে আনে। সেলিনার বাবা মো. বাবুল কড়াইল বস্তির বাসিন্দা।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x