ঢাকা সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯, ৯ বৈশাখ ১৪২৬
৩৩ °সে

শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে এক মাসের জন্য আন্দোলন স্থগিত শিক্ষকদের

শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে এক মাসের জন্য আন্দোলন স্থগিত শিক্ষকদের
শিক্ষকদের আন্দোলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। ছবি: ফোকাস বাংলা

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির আশ্বাসে এক মাসের জন্য আন্দোলন স্থগিত করলেন এমপিও-ভুক্তির দাবিতে প্রেসক্লাবে আন্দোলনরত শিক্ষকরা। রবিবার (২৪ মার্চ) বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের কর্মসূচিতে গিয়ে দেড় মাসের মধ্যে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন তিনি।

বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শিক্ষকদের আন্দোলনে উপস্থিত হয়ে ডা. দীপু মনি জানান, 'আগামী এক থেকে দেড় মাসের মধ্যে স্বীকৃত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো এমপিওভুক্তির আওতায় নিয়ে আসার জন্য যাচাই-বাছাই শুরু করা হবে। আমি আপনাদের কষ্টের বিষয়টা জানি। এমপিওভুক্তি ছাড়া আপনারা কীভাবে জীবন যাপন করেন, সে খবরও আমার কাছে রয়েছে। নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তকরণ কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত কার্যক্রম বাস্তবায়ন শুরু হবে। ইতিমধ্যে আমরা আবেদন গ্রহণ কার্যক্রম শেষ করেছি। যেহেতু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিও কার্যক্রম অর্থসংশ্লিষ্ট বিষয়,তাই এটি বাস্তবায়নে নানা প্রক্রিয়া প্রয়োজন রয়েছে। এ কারণে কিছুটা সময় নেওয়া হচ্ছে'।

তিনি আরও বলেন, 'শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওকরণ বিষয়ে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার রয়েছে। আমি ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীর সাথে কথা বলেছি। আগামী অর্থবছরে এমপিওভুক্তকরণে নতুন অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হবে হবে বলে জানানো হয়েছে। আপনারা বাড়ি ফিরে যান। খোলা আকাশের নিচে রোদের মধ্যে দাঁড়িয়ে আর কষ্ট করবেন না। আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাব, যাতে আপনাদের কষ্ট দূর করা সম্ভব হয়'।

এদিকে আন্দোলন স্থগিতের সিদ্ধান্তের বিষয়ে ননএমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার বলেন, 'শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে ননএমপিওভুক্ত শিক্ষকদের আন্দোলন এক মাসের জন্য আমরা স্থগিত করা হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে আমরা প্রধানন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করে বাস্তবায়নের দাবি জানাব। এরপর আমরা পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করব'।

আরও পড়ুন: বাঁশখালীতে শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন শেষ হয়েছে

উল্লেখ্য, গত পাঁচদিন যাবত এমপিওভুক্তির দাবিতে রাজধানীর প্রেসক্লাবের সামনে আমরণ অনশন আন্দোলন চালিয়ে আসছেন শিক্ষকরা। আমরণ অনশণ আন্দোলনে ১০ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদের মধ্যে একজনকে জাতীয় হৃদরোগ হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ এপ্রিল, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন