ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
৩১ °সে


স্ত্রীকে হত্যার পর মরদেহ পোড়ানোর অভিযোগ, স্বামীকে গ্রেপ্তার

স্ত্রীকে হত্যার পর মরদেহ পোড়ানোর অভিযোগ, স্বামীকে গ্রেপ্তার
নিহত নারী হাসি বেগম ও স্বামী কমল হোসেন

রাজধানীর মুগদায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার পর আলামত লুকাতে মরদেহ পোড়ানোর অভিযোগে স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নিহত ওই নারীর নাম হাসি বেগম। গ্রেপ্তারকৃত অভিযুক্ত স্বামীর নাম কমল হোসেন।

পুলিশ হাসির মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে স্ত্রীকে হত্যা ও মরদেহ পোড়ানোর কথা স্বীকারও করেছেন কমল।

নিহত হাসি বেগম দিনাজপুরের পার্বতীপুর থানার শেখ আলতাফ হোসেনের মেয়ে। তিনি তার স্বামী কমলের সঙ্গে দক্ষিণ মুগদার ৩৯/১ এ নম্বর ব্যাংক কলোনির ভাড়া বাসায় থাকতেন। মুগদা এলাকায় লেদ মেশিনের দোকান রয়েছে কমলের। হাসির সঙ্গে তার বিয়ে হয় আটমাস আগে। তাদের দুজনেরই এটি দ্বিতীয় বিয়ে।

এ ঘটনায় হাসি বেগমের বাবা শেখ আলতাফ হোসেন মুগদা থানায় হত্যা মামলা করেছেন।

মুগদা থানার ওসি প্রলয় কুমার সাহা বলেন, বুধবার সকালে ব্যাংক কলোনির বাসা থেকে হাসি বেগমের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে কমল স্বীকার করেছেন যে, পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রী হাসিকে গলা টিপে হত্যা করেন তিনি। তারপর ঘটনা ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে ও আলামত মুছে ফেলতে স্ত্রীর মরদেহে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেন। আগুনে হাসির শরীরের নিচের অংশ ও চুল পুড়ে গেছে।

ইত্তেফাক/আরকেজি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২১ মে, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন