টাকা দেয়নি ইসরায়েল, টিকার চালান স্থগিত ফাইজারের

টাকা দেয়নি ইসরায়েল, টিকার চালান স্থগিত ফাইজারের
ছবি: সংগৃহীত।

চুক্তি অনুযায়ী টিকার ডোজের টাকা পরিশোধ না করায় ইসরায়েলে টিকার চালান স্থগিত করেছে ফাইজার কর্ত্রৃপক্ষ। সম্প্রতি এক বিবৃতিতে কোম্পানি এই তথ্য জানিয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে মার্কিন গণমাধ্যম বিজনেস ইনসাইডার।

জানা যায়, সম্প্রতি ইসরায়েলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ফাইজার-বায়োএনটেক কোম্পানি বরাবর ৭ লাখ ডোজ করোনা টিকা নেওয়ার অর্ডার দেয়। আগামী রবিবার নাগাদ এই টিকার চালান পৌঁছানোর কথা ছিলো ইসরায়েলে। কিন্তু গত সোমবার (৫এপ্রিল) ফাইজার কর্তৃপক্ষ জানায়, ইসরায়েল সরকার পূর্ববর্তী চালানের অর্থ পরিশোধ না করলে বর্তমান চালানের ডোজগুলো দেশটিতে পাঠানো হবে না।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘ইসরায়েল সরকারের সঙ্গে ফাইজার কর্তৃপক্ষের টিকার ডোজ ক্রয়-বিক্রয়ের যে চুক্তি হয়েছিল, সেটি হালনাগাদ করার চেষ্টা করছে কোম্পানি। সেই কাজ শেষ হলেই ৭ লাখ ডোজ টিকার চালান পৌঁছে যাবে দেশটিতে।’

ডিসেম্বরের শেষ পর্যায় থেকে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু হয় ইসরায়েলে। কিন্তু গোল বাঁধে ফেব্রুয়ারির শুরুর দিকে। টিকার ডোজে টান পড়ায় সে সময় ফাইজার বরাবর আরো ২৫ লাখ ডোজ করোনা টিকা চেয়ে পাঠায় ইসরায়েলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সেই অনুযায়ী ২৫ লাখ ডোজ টিকার চালান দেশটিতে পাঠিয়েও দেয় ফাইজার। কিন্তু কোম্পনির অভিযোগ, সর্বশেষ সেই চালানের টাকা এখনও পরিশোধ করেনি ইসরায়েল সরকার।

ইত্তেফাক/টিআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x