ভারতে এবার আট সিংহ করোনায় আক্রান্ত

ভারতে এবার আট সিংহ করোনায় আক্রান্ত
ছবি: সংগৃহীত।

ভারতে প্রথমবারের মতো সিংহের শরীরেও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। হায়দরাবাদের নেহরু জুলজিক্যাল পার্কের আটটি এশিয়াটিক সিংহের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সেন্টার ফর সেলুলার অ্যান্ড মলিকিউলার বায়োলজিতে তাদের নমুনা পাঠানো হলে সেখানে সিংহগুলোর রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

চিড়িয়াখানার কর্মকর্তা ড. সিদ্ধানন্দ অবশ্য আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি নিশ্চিত করেননি। তিনি বলেন, এটা সত্যি যে সিংহগুলোর মধ্যে কোভিড লক্ষণ দেখা গিয়েছিল। এখনো সিসিএমবি থেকে আরটি-পিসিআর রিপোর্ট হাতে আসেনি। আর তা এলেও ঘোষণা করা ঠিক নয়। সিংহগুলো ভালোই আছে।

ওয়াইল্ড লাইফ রিসার্চ অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টার (ডব্লিউআরটিসি)-র ডিরেক্টর শিরিষ উপাধ্যায় জানিয়েছেন, এর আগে নিউ ইয়র্কের ব্রংস চিড়িয়াখানায় আটটি বাঘ, সিংহের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। হংকংয়ে কুকুর, বিড়ালও আক্রান্ত হয়েছে।

জানা গেছে, আক্রান্ত সিংহদের খিদে চলে গিয়েছিল। আর তারা কাশছিল। এই লক্ষণগুলো দেখেই এনজেপি চিড়িয়াখানার কর্তৃপক্ষ তাদের করোনা টেস্ট করার সিদ্ধান্ত নেয়। এনজেপি আপাতত দুই দিনের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে। সম্প্র্রতি সেখানে ২৫ জন কর্মচারীর করোনা ধরা পড়েছে।

এদিকে আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে, মানুষের থেকে পশুদের মধ্যে কি করোনা সংক্রমণ ছড়াচ্ছে? আর যদি ছড়ায় তা হলে কি তা আরো ভয়াবহ রূপ নিয়ে পশুদের থেকে মানুষের মধ্যে ফের সংক্রমণ ঘটতে পারে? হায়দরাবাদের চিড়িয়াখানায় আটটি এশিয়ান সিংহ করোনা পজিটিভ হওয়ার পর এই প্রশ্নইগুলোই এখন চিকিত্সকদের নতুন করে ভাবাচ্ছে।

যদিও মানুষের থেকেই সিংহগুলো সংক্রমিত হয়েছে কি না তা এখনই নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না বিশেষজ্ঞরা কিন্তু তাদের কাছে উদ্বেগের বিষয় হলো, মানুষের থেকে পশুদের সংক্রমণ ঘটলে এবং সেই ভাইরাস পশুদেহে রূপ বদলে (মিউটেশন ঘটিয়ে) পুনরায় মানুষের শরীরে প্রবেশ করে তা হলে আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে। সে জন্য সিংহগুলোকে নজরে রাখা খুব দরকার বলে মনে করেন সেন্টার ফর সেলুলার অ্যান্ড মলিকুলার বায়োলজির অধিকর্তা চিকিত্সক রাকেশ মিশ্র।

তিনি জানিয়েছেন, সিংহগুলোকে নজরে রাখা হয়েছে। যাতে তাদের থেকে আর কোনও পশুর মধ্যে সংক্রমণ না ছড়িয়ে পড়ে তার জন্য তাদের আলাদা করে রাখা হয়েছে। মানুষের মতো একই চিকিত্সা চলছে তাদের। পাশাপাশি ভাইরাল লোড যাচাইয়েরও পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে।

ইত্তেফাক/এএইচপি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x