নওগাঁ সদর হাসপাতাল

ভারতফেরত রোগীকে হাসপাতাল থেকে রিলিজ, চিকিৎসককে শোকজ

ভারতফেরত রোগীকে হাসপাতাল থেকে রিলিজ, চিকিৎসককে শোকজ
[ছবি: সংগৃহীত]

ভারতে চিকিৎসা গ্রহণ শেষে দেশে আসা আবু হেনাকে (৪২) নওগাঁ সদর হাসপাতাল থেকে নিয়মবহির্ভূত ছাড়পত্র (রিলিজ) দেওয়ায় হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডা. গোলাম রাব্বানীকে শোকজ করা হয়েছে। গত সোমবার আবু হেনার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসায় গতকাল মঙ্গলবার জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন নওগাঁ জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মোহাম্মদ সাঈদুল হক।

আবু হেনা নওগাঁ শহরের প্রাণকেন্দ্র চকদেব মহল্লার হুমায়ূন কবিরের ছেলে। গত রবিবার হেনাকে হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেওয়া হয়। ডা. সাঈদুল হক জানান, বুধবার বিকেলে পুলিশ আবু হেনার ঠিকানা নিয়ে গেছে। পুলিশ তার বাড়ি লকডাউন করে দিবে বলে শুনেছি।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ৩ এপ্রিল ভারতের বেঙ্গালুরতে চিকিৎসার জন্যে যান আবু হেনা। সেখানে ওপেন হার্ট সার্জারি করে ২৭ এপ্রিল বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে দেশে ফিরে আসেন। এরপর থেকে হাসপাতালে আইসোলেশনে ছিলেন। ৩০ এপ্রিল অ্যান্টিজেন ও পিসিআর দুই পদ্ধতিতে করোনার টেস্টের জন্যে নমুনা দেন। অ্যান্টিজেন পদ্ধতিতে তাৎক্ষণিক রিপোর্টে নেগেটিভ আসে। আর পিসিআর টেস্টের জন্যে রিপোর্ট রাজশাহীতে পাঠায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

আবু হেনা জানান, অ্যান্টিজেন পদ্ধতিতে রিপোর্টে নেগেটিভ আসায় আর শারীরিক অসুস্থতা না থাকায় জেলা প্রশাসক, সিভিল সার্জন, সদর উপজেলা নির্বাহীসহ অনেককে অনুরোধ করে হাসপাতাল থেকে রিলিজ নিয়ে ২ মে বাসায় আসি। এরপর থেকে সরকারি নিয়ম মেনে হোম কোয়ারেন্টাইনে আছি।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মোহাম্মদ সাঈদুল হক জানান, অ্যান্টিজেন পদ্ধতিতে রিপোর্টে নেগেটিভ এলেও পিসিআর পদ্ধতিতে টেস্টে ৩ মে আবু হেনার করোনার পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এ ঘটনায় আমরা উদ্বিগ্ন হয়ে আবু হেনার খোঁজ নিতে গিয়ে দেখি হাসপাতালে নেই। বিস্তারিত খোঁজ নিয়ে জানতে পারি আগের দিন ২ মে সন্ধ্যায় আবু হেনাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দিয়েছেন হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডা. গোলাম রাব্বানী। ভারতে করোনার মহামারি জানার পরও সরকারি নিয়ম না মেনে নিয়মবহির্ভূতভাবে অন্যদের না জানিয়ে ছাড়পত্র দেওয়ায় তাকে শোকজ করা হয়েছে।

নওগাঁ সদর মডেল থানা ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল জানান, বুধবার বিকেলে ঘটনাটি জানতে পেরে হাসপাতাল থেকে ঠিকানা ও ফোন নম্বর নিয়ে আবু হেনার সঙ্গে একাধিকবার কথা হয়েছে। তিনিসহ তার পরিবারের লোকজনকে বাসায় থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

নওগাঁর সিভিল সার্জন এবিএম আবু হানিফ জানান, হেনার করোনা পজিটিভ আসার ঘটনাটি জানতে পেরে জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ অন্যরা তার বাড়ি যান। তাকে হাসপাতালে থেকে চিকিৎসা সেবা নেওয়ার অনুরোধ জানালেও তিনি রাজি হননি।

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x