করোনার উৎসের সঙ্গে চীনা মার্কেটের সংযোগ থাকতে পারে: গবেষণা

করোনার উৎসের সঙ্গে চীনা মার্কেটের সংযোগ থাকতে পারে: গবেষণা
প্রতিকী ছবি (সংগৃহীত)

করোনার উৎস খুঁজতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নির্দেশনার দুই সপ্তাহও পার হয়নি। এর মাঝেই সম্প্রতি একটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। যেখানে দাবি করা হয়েছে যে, প্রথমদিকে করোনা রোগী শনাক্তের সঙ্গে চীনা মার্কেটের যোগ সংযোগ রয়েছে। ওই মার্কেটগুলোতে অবৈধভাবে বন্যপ্রাণী বিক্রি করা হয়েছিল। যেখান থেকে কোভিড-১৯ ছড়িয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২০১৭ সালের মে মাস থেকে ২০১৯ সালের নভেম্বর পর্যন্ত এগুলো বিক্রি করা হয়।

দ্য সিঙ্গাপুর পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মিন্ক, মুখোখযুক্ত পালম সিভেটস, র্যাকুন কুকুর, সাইবেরিয়ান ওয়েসেলস, হোগ ব্যাজার এবং চাইনিজ বাঁশের ইঁদুরসহ এমন প্রায় ৩৮টি বন্যপ্রাণী উহানের মার্কেটগুলোতে বিক্রি করা হয়েছিল। গত সোমবার সায়েন্টিফিক রিপোর্ট জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানান গবেষকরা। রিপোর্টটি গত বছরের অক্টোবরে সাবমিট করা হয়েছিল।

করোনার উৎস খোঁজার ব্যাপারটি নিয়ে রাজনৈতিক সমালোচনা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। চীন সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা উহানের ল্যাবে ভাইরাসটি নিয়ে গবেষণাসহ গবেষকদের মূল তথ্য দেয়নি। নতুন এই গবেষণাটি চলতি বছরের শুরুর দিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) নেতৃত্বাধীন সংশ্লিষ্ট গবেষণাটির সমাপ্তি টানতে সহায়তা করতে পারে।

ডব্লিউএইচওর গবেষণায় বলা হয়েছিল, মধ্য উহানের হুয়ানান সামুদ্রিক ফুড এবং তাজা পণ্য বাজারে সরাসরি প্রাণী থেকে মানবদেহে সার্স কোভিড-২ ভাইরাসটি স্থানান্তরিত হয়েছে।

ইত্তেফাক/টিএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x