রংপুর বিভাগে করোনায় আরও ১৭ জনের মৃত্যু

রংপুর বিভাগে করোনায় আরও ১৭ জনের মৃত্যু
ছবি: সংগৃহীত

রংপুর বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৬৭৮ জনের। আক্রান্তের হার ২৭ দশমিক ৩৬ শতাংশ। গত ২৫ দিনে রংপুর বিভাগে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৩৩০ জন। গতকালের তুলনায় রংপুর বিভাগে করোনায় মৃত্যু বাড়লেও শনাক্তের হার কমেছে।

সোমবার দুপুরে রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. মো. মোতাহারুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রবিবার সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে রংপুরের আটজন, দিনাজপুরের তিনজন, ঠাকুরগাঁওয়ে তিনজনসহ পঞ্চগড়, নীলফামারী ও লালমনিরহাটে একজন করে রয়েছেন। এ সময়ে বিভাগে ২ হাজার ৪৭৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬৭৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এর মধ্যে রংপুরের ১৯৫ জন, দিনাজপুরের ১০৩ জন, পঞ্চগড়ে ৯৪ জন, ঠাকুরগাঁওয়ের ৮৫ জন, কুড়িগ্রামে ৭৭ জন, নীলফামারীর৭৫ জন, গাইবান্ধায় ৬৯ জন ও লালমনিরহাটে ২০ জন রয়েছেন।

নতুন করে মারা যাওয়া ১৬ জনসহ বিভাগে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৫৪ জনে। এর মধ্যে দিনাজপুরে ২৫৯ জন, রংপুরে ১৮০ জন, ঠাকুরগাঁওয়ে ১৬৩, নীলফামারীতে ৬৪, পঞ্চগড়ে ৫২, লালমনিরহাটে ৫১, কুড়িগ্রামে ৪৬ ও গাইবান্ধায় ৩৯ জন রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৭৯৬ জন।

রংপুর বিভাগের আট জেলায় এখন পর্যন্ত ৪০ হাজার ৭৪৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে দিনাজপুরে ১১ হাজার ৯৮৮ জন, রংপুরে ৮ হাজার ৯৩২ জন, ঠাকুরগাঁওয়ে ৫ হাজার ৬২৬ জন, গাইবান্ধায় ৩ হাজার ৪৫৯ জন, নীলফামারী ৩ হাজার ২২৩ জন, কুড়িগ্রামে ৩ হাজার ৭৪ জন, লালমনিরহাটে ২ হাজার ৯৭ জন এবং পঞ্চগড়ে ২ হাজার ৩৪৫ জন রয়েছেন।

করোনাভাইরাস শনাক্তের শুরু থেকে এ পর্যন্ত রংপুর বিভাগে ২ লাখ ৪ হাজার ৯৫৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। বিভাগের আট জেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু হয়েছে দিনাজপুর, রংপুর ও ঠাকুরগাঁও জেলায়। এ ছাড়া ভারতীয় সীমান্তঘেঁষা জেলাগুলোয় বেড়েছে শনাক্ত ও মৃত্যু।

করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. মো. মোতাহারুল ইসলাম বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে বাধ্যতামূলক মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে হবে। একই সঙ্গে সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ মেনে চলার বিকল্প নেই।’

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x