রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে আরও ১৭ জনের মৃত্যু 

রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে আরও ১৭ জনের মৃত্যু 
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে থেকে [ছবি: আজাহার উদ্দীন]

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গে আরও ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে করোনা পজিটিভ ৫ জন, পজিটিভ থেকে নেগেটিভ ২ জন এবং উপসর্গে ১০ জন মারা যান। রামেক হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ নিয়ে জুলাই মাসের ২৯ দিনে রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে ৫৪০ জনের মৃত্যু হলো। এর মধ্যে করোনা পজিটিভ হয়ে ১৭২ জন, করোনা পজিটিভ থেকে নেগেটিভ হওয়ার পর ৩৭ জন এবং বাকিরা করোনার উপসর্গে মারা যান। সবচেয়ে বেশী মারা যান ১৪ জুলাই ২৫ জন ও সবচেয়ে কম ৪ জুলাই ১২ জন। এর আগে গত জুন মাসে এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে করোনা ও উপসর্গে মারা যান ৪০৫ জন।

রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আরও ১২ জনের মৃত্যু

রামেক পরিচালক জানান, নতুন মৃতদের রাজশাহীর ৪ (পজিটিভ ১, পজিটিভ থেকে নেগেটিভ ১ ও উপসর্গে ২) জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১ (পজিটিভ থেকে নেগেটিভ) জন, নাটোরের ৩ (পজিটিভ ১, উসগর্স ২) জন, পাবনায় ৫ (পজিটিভ ২, উপসর্গ ৩) জন, নওগাঁর ১ (উপসর্গ) জন, কুষ্টিয়ার ২ (উপসর্গ) জন ও বগুড়ার ১ (পজিটিভ) জন। এদের মধ্যে ৯ জন পুরুষ ও ৮ জন নারী। মৃতদের ৬ জনের বয়স ৬১ ঊর্ধ্ব, ৩ জন ৫১ ঊর্ধ্ব, ৪ জন ৪১ ঊর্ধ্ব, ১ জন ৩১ ঊর্ধ্ব, ২ জন ২১ ঊর্ধ্ব ও ১ জন ১১ ঊর্ধ্ব বয়সের।

তিনি বলেন, আজ বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত এ হাসপাতালের ৫১৩টি করোনা ডেডিকেটেড বেডের বিপরীতে করোনা ও উপসর্গের রোগী ভর্তি রয়েছেন ৪১৫ জন। এরমধ্যে রাজশাহীর ১৮৭. চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২৫, নাটোরের ৭৩, নওগাঁর ৩৯, পাবনার ৭৪, কুষ্টিয়ার ১৩ ও চুয়াডাঙ্গার ২ জন। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালে নতুন ভর্তি হয়েছেন ৫২ জন। এরমধ্যে রাজশাহীর ২৩. চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২, নাটোরের ১৫, নওগাঁর ৪, পাবনার ৫, কুষ্টিয়ার ২ ও মেহেরপুরের ১ জন। একই সময়ে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৩২ জন।

পরিচালক জানান, বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন ৪১৫ জনের মধ্যে ১৯২ জনের করোনা পজিটিভ রয়েছে। আর উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ১৭২ জন। এছাড়াও চিকিৎসা নিয়ে করোনামুক্ত হওয়ার পর ফুসফুসে ইনফেকশনসহ পরবর্তী শারীরিক জটিলতার কারণে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৫১ জন।

সাতক্ষীরায় করোনায় ও উপসর্গে ৫ জনের মৃত্যু, বেড়েছে সংক্রমণ

তিনি আরও জানান, বুধবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজের (রামেক) ভাইরোলজি ল্যাব এবং রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মলিকুলার ল্যাবে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ৬১৬ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে করোনা পজিটিভ এসেছে ১৬০ জনের। রামেক ভাইরোলজি ল্যাবে রাজশাহীর ২৫২ নমুনায় ৬০ এবং নাটোরের ১৮৭ নমুনায় ৩৬ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে। অন্যদিকে রামেক হাসপাতালের মলিকুলার ল্যাবে ১৭৭ নমুনায় ৬৪ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে। রাজশাহীতে সংক্রমণের হার দাঁড়িয়েছে ২৮ দশমিক ৯০ শতাংশ এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জে সংক্রমণের হার দাঁড়িয়েছে ১৯ দশমিক ২৫ শতাংশ।

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x