জুলাইয়ে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে রাজশাহীতে

জুলাইয়ে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে রাজশাহীতে
ছবি: সংগৃহীত

রাজশাহী বিভাগের করোনা শনাক্ত ও মৃত্যুর অর্ধেকের বেশি গত জুন ও জুলাই মাসে হয়েছে। তবে জুন মাসের চেয়ে জুলাই মাসে করোনা শনাক্ত ও মৃত্যু বেশি হয়েছে। এ বিভাগে জুন মাসে করোনা শনাক্ত হয়েছে ২০ হাজার ২৭৯ জনের। মৃত্যু হয়েছে ৩১৫ জনের। বিভাগে জুলাই মাসে করোনা শনাক্ত হয়েছে ২৭ হাজার ২৯৩ জনের। এ সময়ে মারা গেছেন ৪৪৪ জন।

স্বাস্থ্য পরিচালকের অফিস সূত্র জানায়, রাজশাহী বিভাগে ৩১ জুলাই পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছে ৮৩ হাজার ৪৭ জনের। মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৩১৮ জনের। জুন ও জুলাই মাসে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৪৭ হাজার ৫৭২ জনের, যা মোট শনাক্তের অর্ধেকের বেশি। এ দুই মাসে মারা গেছেন ৭৫৯ জন, যা মোট মৃত্যুর অর্ধেকের বেশি।

করোনা রোগীর সব পরীক্ষা হবে রামেক হাসপাতালেই

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গত ঈদুল ফিতরের পর চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় প্রথম সংক্রমণ দেখা দেয়। এ জেলায় সংক্রমণ ৬০ শতাংশের ওপরে ছিল কয়েক দিন। মৃত্যুও বাড়ছিল। জুন মাসের দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি রোগীর অর্ধেকই ছিল চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার রোগী। এ সময়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণার পর সঙ্গে করোনার সংক্রমণ পুরো বিভাগের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে। মৃত্যুও বাড়তে থাকে। বর্তমানে বিভাগের বগুড়া, পাবনা, সিরাজগঞ্জ ও নাটোরে করোনা পরিস্থিতি ক্রমেই খারাপ হচ্ছে। বিশেষ করে বিভাগের বগুড়া জেলায় প্রতিদিনই ৫ থেকে ৯ জন করে করোনায় মারা যাচ্ছে। তবে জুলাইয়ের শেষ দিকে এসে বিভাগের সংক্রমণ ও মৃত্যুহার কিছুটা কমেছে।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অফিস সূত্র জানায়, রাজশাহী জেলায় গত বছরের ১২ এপ্রিল প্রথম করোনা পজিটিভ রোগী শনাক্ত হন। প্রথম রোগী মারা যান গত বছরের ২৬ এপ্রিল। ৩১ জুলাই পর্যন্ত বিভাগে সর্বমোট করোনা শনাক্ত ৮৩ হাজার ৪৭ জন ও সর্বমোট মৃত্যু ১ হাজার ৩১৮ জন। এর মধ্যে গত মে মাস পর্যন্ত শনাক্ত রোগী ছিল ৩৫ হাজার ৪৭৫ জন এবং করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ৫৫৮ জনের। মে মাস পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল ২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৮৯ জনের।

সূত্র মতে, জুন মাসে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে এক লাখ ১৯ হাজার ৪৫ জনের। এতে করোনা শনাক্ত হয়েছে ২০ হাজার ২৭৯ জনের। এই এক মাসে করোনায় মারা যান ৩১৫ জন। পরীক্ষা অনুপাতে শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৮৯। মৃত্যুর হার ছিল ১ দশমিক ৫৫।

সূত্র জানায়, সর্বশেষ জুলাই মাসে রাজশাহী বিভাগে সবচেয়ে বেশি এক লাখ ২৫ হাজার ১১১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। করোনা শনাক্ত হয়েছে ২৭ হাজার ২৯৩ জনের। করোনায় জুলাই মাসে মারা যান ৪৪৪ জন। করোনা শনাক্ত ২১ দশমিক ৮১ শতাংশ। শনাক্ত অনুপাতে মৃত্যুর হার এক দশমিক ৬২ শতাংশ। অর্থাৎ জুন মাসের তুলনায় জুলাই মাসে রাজশাহী বিভাগে করোনা শনাক্ত ও মৃত্যুর হার বেড়েছে।

রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে ১৩ জনের মৃত্যু 

এদিকে, গত ৩১ জুলাই পর্যন্ত বিভাগে মোট মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৩১৮ জনের। বিভাগের আট জেলার মধ্যে বগুড়ায় সর্বোচ্চ ৫৫৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৪৪ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজশাহী জেলায়। এছাড়া চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৩৯ জন, নওগাঁয় ১১৭, নাটোরে ১১৩, জয়পুরহাটে ৫০, সিরাজগঞ্জে ৬৫ ও পাবনায় ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. মো. হাবিবুল আহসান তালুকদার বলেন, ঈদুল আযহার পর থেকে রাজশাহী বিভাগে করোনা সংক্রমণ কিছুটা কম। মৃত্যুও কমেছে। তবে গত রবিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জে করোনা রোগী বেড়ে শনাক্ত ৩২ শতাংশে উঠেছে। এটা উদ্বেগজনক। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও চাঁপাইনবাবগঞ্জের করোনা রোগী কিছুটা বেড়েছে।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x