বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ২৭ আষাঢ় ১৪২৭
৩০ °সে

করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই স্বাভাবিক বিচার ব্যবস্থা চালু

রেড জোনে বসবে না ভার্চুয়াল কোর্ট
করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই স্বাভাবিক বিচার ব্যবস্থা চালু
ফাইল ছবি

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত স্বাভাবিক বিচার ব্যবস্থায় ফিরছে না আদালতগুলোতে। স্বাভাবিক বিচার ব্যবস্থায় ফেরা না পর্যন্ত আদালতের বিচারকাজ চলবে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে। সেই লক্ষ্যে উচ্চ ও নিম্ন আদালতে ভার্চুয়াল কোর্ট পরিচালনার সময়সীমা আবারো বাড়ানো হয়েছে। এ নিয়ে দুই দফায় সময়সীমা বৃদ্ধির পাশাপাশি মামলা পরিচালনার জন্য উচ্চ আদালতে বাড়ানো হয়েছে বেঞ্চের সংখ্যাও। শুরুতে চারটি বেঞ্চকে মামলা পরিচালনার এখতিয়ার প্রদান করা হলেও এখন তেরটি বেঞ্চকে দায়িত্ব দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি। ফৌজদারি মোশন, রিট মোশন, জামিনের আবেদনসহ বিভিন্ন ধরনের মামলার শুনানি গ্রহন ও নিষ্পত্তির এখতিয়ার দেওয়া হয়েছে বিচারকদের।

সুপ্রিম কোর্ট সূত্র জানিয়েছে, আদালত প্রাঙ্গণ অত্যন্ত জনাকীর্ণ। এখানে স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থী জনগণ কতটা মেনে চলবেন সেটা নিয়ে কর্তৃপক্ষ সন্দিহান। এছাড়া বেশ কয়েকজন বিচারক ও আইনজীবী করোনায় আক্রান্ত। তাই বর্তমান পরিস্থিতিতে আদালত খোলার পর করোনা আক্রান্ত হয়ে যদি কোন মৃত্যুর ঘটনা ঘটে তার দায় কে নেবে? ফলে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলে স্বাভাবিক বিচার ব্যবস্থায় ফেরা নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ সহসাই নয় বলে সূত্র জানায়।

এদিকে করোনার উচ্চ সংক্রমণ ঠেকাতে দেশের বিভিন্ন এলাকাকে তিনটি জোনে ভাগ করে লকডাউনের সরকারি সিদ্ধান্তে একমত পোষণ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। সেই লক্ষ্যে যেসব আদালত 'রেড জোন' এলাকায় পড়বে সেখানকার ভার্চুয়াল কোর্টের বিচারকাজ বন্ধ থাকবে বলে সুপ্রিম কোর্ট সূত্র জানিয়েছে।

করোনা ভাইরাসজনিত উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বিচারক, আইনজীবী, বিচারপ্রার্থী জনগণ যাতে এই ভাইরাসে আক্রান্ত না হয় সেজন্য স্বাস্থ্যবিধি ও হাইকোর্টের প্র্যাকটিস ডাইরেকশন অনুসরন করে গত ১১ মে থেকে সুপ্রিম কোর্ট ও অধস্তন আদালতে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে বিচার কাজ পরিচালনার নির্দেশনা দেওয়া হয়। ওই নির্দেশনার আলোকে ৩১ মে পর্যন্ত উচ্চ ও নিম্ম আদালতে বিচারকাজ চলছিলো। ওই সময়সীমা শেষ হওয়ার পর ১৫ জন পর্যন্ত ভার্চুয়াল কোর্টে বিচারকাজ পরিচালনার মেয়াদ বাড়ানো হয়। সোমবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নির্দেশে ভার্চুয়াল কোর্টের মেয়াদ অনিদ্দিষ্টকালের জন্য বাড়িয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

এ সংক্রান্ত সার্কুলারে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধকল্পে ও শারীরিক উপস্থিতি ব্যতিরেকে আজ মঙ্গলবার থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে ভার্চুয়াল কোর্টে বিচারকাজ পরিচালনা অব্যাহত থাকবে।

রেড জোনের আদালতসমূহে ছুটি ঘোষণা

রেড জোন এলাকায় অবস্থিত অধস্তন আদালত সমূহ এবং রেড জোনে বসবাসরত আদালতের কর্মকর্তা কর্মচারিদের জন্য সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। তবে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতায় লাল অঞ্চলসহ দেশের প্রত্যেকটি জেলায় চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এবং চীফ মেট্রোপলিটন এলাকায় মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার জন্য একাধিক ম্যাজিস্ট্রেট কর্তব্যরত থাকবেন। গতকাল সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃক জারিকৃত ওই সার্কুলারে বলা হয়েছে, সাধারণ ছুটি কালে আদালতের কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারি নিজ কর্মস্থল ত্যাগ করতে পারবেন না।

ইত্তেফাক/কেকে

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত